• আজঃ শুক্রবার, ২৮শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১২ই আগস্ট, ২০২২ ইং

চাঁপাইনবাবগঞ্জ অধ্যক্ষকে ৪ ঘণ্টা অবরুদ্ধ রাখলো ছাত্ররা

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে মোবারক হোসেন (৪৮) নামে স্কুল অ্যান্ড কলেজের এক অধ্যক্ষকে চার ঘণ্টা অবরুদ্ধ করে রাখে স্কুলছাত্ররা। খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার (২৭ মার্চ) বিকেলে উপজেলার চরতারাপুর স্কুল অ্যান্ড কলেজে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা সূত্রে জানা যায়, রোববার দুপুরে চরতারাপুর স্কুল অ্যান্ড কলেজ মাঠে স্কুলের ছাত্ররা ক্রিকেট খেলছিল। এ সময় বল এক কলেজছাত্রের শরীরে লাগে। এ বলের আঘাত লাগাকে কেন্দ্র করে স্কুল ও কলেজছাত্রদের সঙ্গে হাতহাতি হয়। এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের ছাত্রদের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। পরে অধ্যক্ষের অনিয়ম-দুর্নীতির প্রতিবাদ ও অপসারণের দাবিতে স্লোগান দিতে থাকে স্কুলছাত্ররা। এক পর্যায়ে স্কুলের শিক্ষকদের রুমে অধ্যক্ষকে অবরুদ্ধ করে রাখে ছাত্ররা।

আন্দোলনকারী স্কুলছাত্ররা জানায়, বিদ্যালয়ে নিয়মিত ক্লাস হয় না। করণিক ও পিয়ন ঠিকমতো প্রতিষ্ঠানে আসেন না। এমনকি পরিবার নিয়ে রাজশাহীতে বসবাস করায় অধ্যক্ষ বিদ্যালয়ে প্রতিদিন আসেন না। এতে প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার মান দিন দিন অবনতি হচ্ছে। অবিলম্বে অধ্যক্ষের অনিয়ম-দুর্নীতির প্রতিবাদ জানিয়ে তার অপসারণের দাবি করে ছাত্ররা।

এ বিষয়ে অধ্যক্ষ মোবারক হোসেন বলেন, বিকেলে খেলাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনায় ছাত্ররা আকে আমাকে প্রায় চার ঘণ্টা অবরুদ্ধ করে রাখে। পরে থানা পুলিশের সহায়তায় সেখান থেকে মুক্তি পাই।
প্রতিষ্ঠানটির পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়ার দাবি, প্রতিষ্ঠানে কোনো অনিয়ম-দুর্নীতি হয়নি। করোনার কারণে ক্লাস বন্ধ থাকলেও এখন নিয়মিত ক্লাস হচ্ছে।

তবে প্রতিষ্ঠানে অধ্যক্ষের অনিয়মিত আসার বিষয়ে তিনি কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।

শিবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চৌধুরী জোবায়ের আহাম্মদ জাগো নিউজকে বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে এবং অধ্যক্ষকে উদ্ধার করা হয়। এ বিষয়ে কোনো অভিযোগ পাইনি। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।