• আজঃ মঙ্গলবার, ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১লা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং

কঠিন বিপদের মুখোমুখি ট্রাম্প

যুক্তরাষ্ট্রের হার না–মানা প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জন্য কোথাও কোনো সুখবর নেই। মিশিগানের দলীয় আইনপ্রণেতারা জানিয়েছেন, নির্বাচনের ফলাফল পাল্টে দেওয়ার কোনো কাজে তাঁরা নেই। জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যে নির্বাচনের ফলাফল পুনর্গণনা পর ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনকে জয়ী বলে সার্টিফাই করা হয়ে গেছে। এদিকে ডোনাল্ড ট্রাম্প জুনিয়রের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

পেনসিলভানিয়া অঙ্গরাজ্যে ভোট গণনা স্থগিত রাখার পক্ষে আদালতে ট্রাম্পের আইনজীবী কোনো প্রমাণ উপস্থাপন করতে পারেননি। সব মিলে রাজ্য আইনসভার মাধ্যমে নির্বাচনের ফলাফল পাল্টে দেওয়ার আশাও শেষ হয়ে আসছে। সময় এখন শুধু দিন গণনার। তবে ডোনাল্ড ট্রাম্প এখনো নিজের পরাজয় স্বীকার করেননি। ট্রাম্পের শিবিরে বেশ কিছু দুঃসংবাদ তাড়া করছে। ট্রাম্পের বড় ছেলে ডোনাল্ড ট্রাম্প জুনিয়রের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ সপ্তাহের শুরুতেই তিনি করোনা শনাক্ত হন। এরপর থেকে তিনি নিজে থেকেই আইসোলেশনে আছেন বলে জানানো হয়েছে। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের শীর্ষ আইনজীবী রুডি জুলিয়ানির ছেলে এন্ড্রু জুলিয়ানির করোনা শনাক্ত হয়েছে।

ট্রাম্প মিশিগানের প্রভাবশালী দুজন রিপাবলিকানকে হোয়াইট হাউসে আমন্ত্রণ জানান। স্থানীয় সময় গতকাল শুক্রবার রাজ্য সিনেট সভার সংখ্যাগরিষ্ঠ দলের নেতা মাইক সিরকেই এবং রাজ্য আইনসভার স্পিকার লি চ্যাটফিল্ড হোয়াইট হাউসে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠক করেন। ওয়াশিংটন পৌঁছানোর পর বিমানবন্দরে একদল বিক্ষোভকারী তাঁদের দেখে স্লোগান দেন। বিক্ষোভকারীরা মিশিগানের ভোট অবিলম্বে সার্টিফাই করার দাবি জানান।

হোয়াইট হাউসে রাজ্য আইনসভার আইনপ্রণেতাদের ট্রাম্পের সঙ্গে সভা নিয়ে উদ্বেগ দেখা দেয়। সভা থেকে বেরিয়ে রিপাবলিকান পার্টির এই দুই নেতা বলেছেন, মিশিগানের ভোট যথানিয়মেই সার্টিফাই হবে। ফলাফলের কোনো পরিবর্তনের তথ্য তাঁদের কাছে নেই। ধারণা করা হচ্ছে, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে এ নিয়ে তাঁদের কোনো মতানৈক্য হয়নি। মিশিগানে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন জিতেছেন। ভোটের সার্টিকেশন করা নিয়ে সেখানে নাটকীয় অবস্থা তৈরি হয়। কাউন্টি নির্বাচন বোর্ডের দুজন রিপাবলিকান সদস্য প্রথমে সার্টিফিকেশনে সই দিতে অস্বীকার করেন। পরে স্বাক্ষর দেওয়ার কয়েক ঘণ্টা পরে বলেছেন, তাঁদের কাছ থেকে চাপ দিয়ে স্বাক্ষর আদায় করা হয়েছে।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের আইনজীবী সিন্ডি পাওয়েল ফক্স নিউজকে বলেছেন, সব কটি সুইং স্টেটের ভোটে ব্যাপক কারচুপি হয়েছে। ওই সব রাজ্যের ইলেক্টোরাল ভোট নিয়ে রাজ্যের আইনসভায় সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত বলে তিনি জানান। এসব নিয়ে তাঁরা সর্বোচ্চ আদালতে যাচ্ছেন বলেও জানিয়েছেন। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প আবারও নির্বচনে তাঁর বিজয় নিয়ে ভিত্তিহীন দাবি তুলেছেন। হোয়াইট হাউসে এক সংক্ষিপ্ত সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেছেন, ‘নির্বাচনে আমি জয়ী হয়েছি!’ তিনি সাংবাদিকদের কোনো প্রশ্ন না নিয়ে সংবাদ সম্মেলনস্থল ছেড়ে চলে যান।

জো বাইডেন ডেলাওয়্যারে নিজের বাড়িতেই অবস্থান করছেন। স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি ও সিনেটর চার্লস শুমারের সঙ্গে তিনি বৈঠক করেছেন। নবনির্বাচিত ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস এ সভায় উপস্থিত ছিলেন। তাঁরা কোভিড-১৯ পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেছেন। নাগরিকদের জন্য প্রণোদনা আইন দ্রুত পাস করার নিয়েও কথা বলেছেন। জো বাইডেন ও কমলা হ্যারিসের ট্রানজিশন টিম যথারীতি ট্রাম্প প্রশাসনের কোনো সহযোগিতা ছাড়াই কাজকর্ম এগিয়ে নিচ্ছে।

ট্রানজিশন টিমের মুখপাত্র ইয়োহানেস আব্রাহাম বলেছেন, ট্রাম্প প্রশাসনের পক্ষ থেকে খেলা করা হচ্ছে। জেনারেল সার্ভিস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন–প্রধানকে দ্রুত ট্রানজিশন টিমকে সহযোগিতায় এগিয়ে আশার জন্য আহ্বান জানানো হয়েছে।