• আজঃ শুক্রবার, ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৭শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

বাংলাদেশ হিউম্যান হেল্পিং সোসাইটি, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শাখার করোনা সচেতনতা প্রজেক্ট।

সর্বদা মানব সেবায় নিয়োজিত’-এই মর্মে উজ্জীবিত কিছু উদ্যমী তরুণ-তরুণীর প্রচেষ্টায় ২০১৩ সালের ১লা মে থেকে যাত্রা শুরু করে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘বাংলাদেশ হিউম্যান হেল্পিং সোসাইটি’। বর্তমানে এই সংগঠনটি সাড়া বাংলাদেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজে তাদের প্রতিনিধিদের মাধ্যমে মানবসেবা মূলক বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করে যাচ্ছে।

প্রতিষ্ঠার পর থেকে বিগত বছরগুলোর মতো বর্তমানেও “বাংলাদেশ হিউম্যান হেল্পিং সোসাইটি” অসহায় রোগীদের সহযোগিতা , গরীব ছেলে-মেয়েদের ভর্তি, শিক্ষা উপকরণ বিতরণ, ঈদে বস্ত্র বিতরণ কর্মসূচি,শীত বস্ত্র বিতরণ কর্মসূচি,স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি সহ বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে।

তারই ধারাবাহিকতায় বর্তমান করোনা পরিস্থিতি যখন অবনতির দিকে যাচ্ছে এবং করোনার সেকেন্ড ওয়েভ আসার সম্ভাবনা রয়েছে ঠিক তখনই পূর্বের ন্যায় মানুষের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে “প্রজেক্ট সুরক্ষা”-এর উদ্যেগ নেয় “বাংলাদেশ হিউম্যান হেল্পিং সোসাইটি,যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা” থেকে। তারা ঢাকা,বরিশাল এবং রংপুরের বিভিন্ন এলাকায় সর্বসাধারণ এর মাঝে মাস্ক,স্যানিটাইজার/হেক্সাসল,সাবান এবং বিভিন্ন সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ করেন।

“প্রজেক্ট সুরক্ষা’র” উদ্যেগ ও বাস্তবায়নে দিকনির্দেশনায় ছিলেন “বাংলাদেশ হিউম্যান হেল্পিং সোসাইটি,যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা”-এর Campus Ambassador পেট্রোলিয়াম এন্ড মাইনিং ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী এস এম ফয়সাল আহমেদ আকাশ, Deputy Campus Ambassador এবং Assistant Campus Ambassador একই বিভাগের ২য় বর্ষের ছাত্র মোঃদিদারুল ইসলাম এবং ১ম বর্ষের ওয়াহিদা রহমান নীতি। বাস্তবায়নকারীদের প্রত্যাশা তারা এই ইউনিট এর মাধ্যমে পরবর্তীতে আরো এমন মানবিক ইভেন্ট সম্পন্ন করবে।