• আজঃ মঙ্গলবার, ১২ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ ইং

মুম্বাইকে উড়িয়ে প্লে-অফে হায়দরাবাদ

কলকাতা নাইট রাইডার্সের প্লে-অফে খেলার স্বপ্ন ভেঙে দিলো সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিপক্ষে আইপিএলের লিগ পর্বের শেষ ম্যাচে ১০ উইকেটের দুর্দান্ত জয়ে তৃতীয় হয়ে পরের ধাপ নিশ্চিত করলো তারা।

যে দলগুলোর বিপক্ষে শেষ তিন ম্যাচ হায়দরাবাদ জিতলো, তারা প্রত্যেকে প্লে-অফে। এই সাফল্য ২০১৬ সালের চ্যাম্পিয়নদের আত্মবিশ্বাসে এগিয়ে রাখবে। আগামী ৬ নভেম্বর আবুধাবিতে এলিমিনেটরে তারা খেলবে টেবিলের চতুর্থ দল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর বিপক্ষে। আগের দিন প্রথম কোয়ালিফায়ারে দিল্লি ক্যাপিটালসের মুখোমুখি হবে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই। এই ম্যাচের বিজয়ী সরাসরি খেলবে ফাইনাল, পরাজিত দল শিরোপার লড়াইয়ে টিকে থাকতে খেলবে এলিমিনেটরে জেতা দলের সঙ্গে।শারজাহতে আগে ব্যাটিংয়ে নামা মুম্বাই মন্থর উইকেটে সুবিধা করতে পারেনি। সন্দীপ শর্মা, জেসন হোল্ডার ও শাহবাজ নাদিমের কাছে উইকেট হারাতে থাকে তারা। চ্যাম্পিয়নদের ৮ উইকেটে ১৪৯ রানে থামায় হায়দরাবাদ। এরপর ডেভিড ওয়ার্নার ও ঋদ্ধিমান সাহার ফিফটিতে ১৭.১ ওভারে ১৫০ রান করে তারা।

মুম্বাইয়ের নড়বড়ে ব্যাটিং লাইনে শক্ত হাল ধরতে পারেননি কেউ। কিয়েরন পোলার্ড সর্বোচ্চ ৪১ রান করেন। এছাড়া সূর্যকুমার যাদব (৩৬), ইশান কিষান (৩৩) ও কুইন্টন ডি কক (২৫) দুই অঙ্কের ঘরে রান করেন।

হায়দরাবাদের সন্দীপ সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন। দুটি করে পান হোল্ডার ও শাহবাজ।দলকে জেতানোর পথে হায়দরাবাদ অধিনায়ক ওয়ার্নার ৩৫ বলে হাফসেঞ্চুরি করেন। একটি কম বল খেলে পঞ্চাশ ছোঁন ঋদ্ধিমান। ৮৫ রানে অপরাজিত ছিলেন ম্যাচজয়ী বাউন্ডারি হাঁকানো ওয়ার্নার। ৫৮ রানে খেলছিলেন ঋদ্ধিমান। শাহবাজ কম খরুচে থাকায় ম্যাচসেরা হোন। ৪ ওভারে দেন ১৯ রান।

দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।