• আজঃ শনিবার, ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৮শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

হাসপাতালে র‌্যাবের অভিযান: ভুয়া চিকিৎসক ও দালাল আটক

রাজধানীর মোহাম্মদপুর ও শ্যামলী এলাকায় ৩টি হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে কয়েকজন ভুয়া চিকিৎসক ও দালালদের আটক করেছে র‌্যাব।
বুধবার রাতে রাজধানীর মোহাম্মদপুর ও শ্যামলী এলাকায় মক্কা-মদিনা হাসপাতাল, নূরজাহান জেনারেল হাসপাতাল, ক্রিসেন্ট হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। র‌্যাব-২ ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রতিনিধিদের সহযোগিতায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসু এই অভিযান চালায়।

অভিযানে বেরিয়ে আসে চিকিৎসার নামে প্রতারণা বাণিজ্যে ও অনিয়মের বিভিন্ন চিত্র। এ সময় অনিয়মের দায়ে আটক হাসপাতালের মালিকসহ কয়েকজনকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেয় ভ্রাম্যমাণ আদালত।

অভিযানে দেখা যায়, অপারেশন থিয়েটারের মতো স্পর্শকাতর কক্ষে সর্বত্র রক্তের ছড়াছড়ি। কোথাও পুরনো কালচে রক্তের দাগ কোথাও তাজা রক্ত। অপরিস্কার অবস্থায় ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে হ্যান্ডগ্লাভসসহ অস্ত্রোপচারের নানা সরঞ্জাম। মানা হচ্ছিলো কোনো নিয়ম-কানুন।

র‌্যাবের পক্ষ থেকে জানানো হয়, পঙ্গু হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা সাধারণ রোগীদের দালালরা প্ররোচিত করে এসব হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করাতো। এছাড়াও প্রাইভেট হাসপাতালগুলোতে নামসর্বস্ব এবং ভুয়া চিকিৎসক দিয়ে সেবা দেয়ার প্রমাণ মিলেছে।

অভিযানে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ও দালালসহ কয়েকজনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড ও দুইটি হাসপাতাল সিলগালা করা হয়। সতর্ক করা হয় ক্রিসেন্ট হাসপাতালকে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসু জানান, তিন হাসপাতালের মালিককে সাজা এবং দুই হাসপাতাল সিলগালা ও ক্রিসেন্ট হাসপাতালকে সতর্ক করা হয়েছে।

এদিকে, অভিযানের পর হাসপাতালগুলোতে ভর্তি রোগীদের অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হয়। সিলগালা করে দেয়া হয় দুই হাসপাতাল। আর চিকিৎসার নামে বাণিজ্য কিংবা প্রতারণা বন্ধে অভিযান চলমান থাকবে বলে জানায় র‌্যাব।