• আজঃ রবিবার, ১৯শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩রা জুলাই, ২০২২ ইং

পদ্মাসেতুর ৫ কিলোমিটার দৃশ‌্যমান

পদ্মাসেতুতে বসানো হয়েছে ৩৩তম স্প্যানটি। এর মাধ্যমে সেতুর প্রায় ৫ কিলোমিটার দৃশ্যমান হলো।

সোমবার (১৯ অক্টোবর) বেলা ১২টার সময় স্পেনটি বসানোর কাজ শেষ হয়। পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান আবদুল কাদের ৩৩তম স্প্যান বসানোর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে সকাল ৯টায় পদ্মা নদীতে স্রোত ও আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় মুন্সীগঞ্জের মাওয়া প্রান্তের সেতুর ৩ ও ৪ নম্বর পিলারের ওপর স্প্যান বসানোর কাজ শুরু হয়।

নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান আবদুল কাদের জানান, আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় সকালে ৩৩তম স্প্যান বসানোর কাজ শেষ হয়েছে। ৩২তম স্প্যান বসানোর আট দিনের মাথায় আজকের স্প্যানটি বসানো হলো। এ মাসে আরও দুটি স্প্যান বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে। ডিসেম্বরের মধ্যেই সব স্প্যান বসানো শেষ হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

সেতু কর্তৃপক্ষ জানায়, পদ্মাসেতু নির্মাণে ২ হাজার ৯১৭টি রোড ওয়ে স্লাব বসানো হবে। এরমধ্যে ১ হাজার ৪১টির বেশি রোড স্লাব বসানো হয়েছে। এছাড়া, ২ হাজার ৯৫৯টি রেলওয়ে স্লাব বসানো হবে। এরমধ্যে এখন পর্যন্ত বসানো হয়েছে ১ হাজার ৫০০টির বেশি। মূল সেতুর কাজ ৯০ ভাগ ও সার্বিক কাজ ৮১ দশমিক ৫ ভাগ সম্পন্ন হয়েছে।২০১৪ সালের ডিসেম্বরে পদ্মাসেতুর নির্মাণকাজ শুরু হয়।

মূল সেতু নির্মাণের জন্য কাজ করছে চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি (এমবিইসি)। নদীশাসনের কাজ করছে দেশটির আরেকটি প্রতিষ্ঠান সিনো হাইড্রো করপোরেশন। ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এই বহুমুখী সেতুর মূল আকৃতি হবে দোতলা। কংক্রিট ও স্টিল দিয়ে নির্মিত হচ্ছে পদ্মা সেতুর কাঠামো।

দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।