• আজঃ রবিবার, ১৯শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩রা জুলাই, ২০২২ ইং

ফেনীর সোনাগাজীতে ছেলের পর প্রকৌশলী বাবাও মারা গেলেন

ফেনীর সোনাগাজীতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ছেলের মৃত্যুর পর করোনা থেকে সুস্থ হয়ে হৃদরোগ ও শ্বাসকষ্টে মারা গেলেন প্রকৌশলী বাবা আবদুল বাকী (৮৩)। তিনি দীর্ঘদিন ধরে হৃদরোগ ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। গত শুক্রবার দিবাগত রাতে চট্টগ্রামের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। তিনি উপজেলার আমিরাবাদ ইউনিয়নের আহম্মদপুর এলাকার বাসিন্দা ও চট্টগ্রাম ন্যাশনাল পলিটেকনিক্যাল কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও অধ্যক্ষ ছিলেন।

উপজেলার আমিরাবাদ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জহিরুল আলম বলেন, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ১৮ আগষ্ট চট্টগ্রামের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান প্রকৌশলী আবদুল বাকীর ছেলে প্রকৌশলী মো. সাহেদ। তিনি একটি বেসরকারী কোম্পানীতে কর্মরত ছিলেন। ছেলের সঙ্গে করোনায় বাবা-মাসহ পরিবারের সবাই করোনায় আক্রান্ত হয়ে আইসোলেশনে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে ওঠেন।

ছেলের মৃত্যুর পর ২০ আগষ্ট প্রকৌশলী আবদুল বাকী পুনরায় হৃদরোগ ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে চট্টগ্রামের একটি হাসপাতালে ভর্তি হন। শুক্রবার রাতে ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। মৃত্যুর পর স্বজনরা তার লাশ গ্রামের বাড়িতে নিয়ে আসেন। শনিবার বিকেলে জানাযা শেষে বিশেষ ব্যবস্থাপনায় তার লাশ পারিবারিক কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন করা হয়েছে। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।