• আজঃ শুক্রবার, ২৩শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৭ই আগস্ট, ২০২০ ইং, ১৮ই জিলহজ্জ, ১৪৪১ হিজরী

২ হাজার চিকিৎসক নিয়োগ দেবে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়

নগর২৪ ডেস্ক:


সরকারিভাবে চিকিৎসক নিয়োগে আরো একটি বিশেষ বিসিএস পরীক্ষা আয়োজনের প্রস্তুতি শুরু করেছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। ৪২তম বিসিএসের মাধ্যমে আরো ২ হাজার চিকিৎসক নিয়োগ দিতে এ পরীক্ষা আয়োজন করা হবে। ইতোমধ্যে কমিশনের সভা করে বিধিমালা সংশোধন করে খসড়া অনুমোদন করা হয়েছে বলে পিএসসি থেকে জানা গেছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে পিএসসির চেয়ারম্যান ডা. মোহাম্মদ সাদিক আজ মঙ্গলবার জানিয়েছেন, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে চিকিৎসক নিয়োগে নতুন করে চাহিদাপত্র পাঠানো হয়েছে। এ চিঠি আমরা পেয়েছি। চাহিদাপত্র পাওয়ার পর কমিশনের সভা করে বিশেষ বিসিএসের আয়োজনের জন্য চলমান বিধিমালা সংশোধন করে একটি খসড়া তৈরি করা হয়েছে।

কমিশনের সদস্যরা সেটি অনুমোদন দিয়েছেন। সেটি দ্রুত জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে। সেখান থেকে অনুমোদন দেয়া হলে চিকিৎসক নিয়োগে ৪২তম বিশেষ বিসিএস পরীক্ষা আয়োজন করা হবে। পরীক্ষা ও নিয়োগের কাজ শুরু করতে পিএসসি থেকে দ্রুত বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে বলেও জানান চেয়ারম্যান।

পিএসসি থেকে জানা গেছে, গত ১৩ জুলাই জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে ২ হাজার চিকিৎসক নিয়োগের সুপারিশ পিএসসিতে পাঠানো হয়। এ চাহিদাপত্র পাওয়ার পর মঙ্গলবার পিএসসি কমিশনের সভা ডাকা হয়। এর আগে ২০১৮ সালের এপ্রিল মাসে ৩৯তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়। আর ২০১৯ সালের এপ্রিলে তার ফল প্রকাশ করা হয়।

৩৯তম ব্যাচে উত্তীর্ণদের ভেতর থেকে ৪ হাজার ৭৯২ জন চিকিৎসককে নিয়োগের সুপারিশ করে পিএসসি। ওই বছরেরই নভেম্বর মাসে ৪ হাজার ৪৪৩ জনকে স্বাস্থ্য ক্যাডারে নিয়োগ দিয়ে আদেশ জারি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। একই বিসিএসে উত্তীর্ণ ৮ হাজার ৩৬০ জনকে নন-ক্যাডার পদে নিয়োগের জন্য রাখা হয়।

এর মধ্যে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শুরু হলে সেই ৮ হাজার ৩৬০ জনের মধ্য থেকেই গত মে মাসে ২ হাজার জনকে নিয়োগ দেয়া হয়। এই নন-ক্যাডারের তালিকায় আরো ৬ হাজার ৩৬০ জন চিকিৎসক অপেক্ষায় আছেন।


ফেসবুকে লাইক দিন