• আজঃ মঙ্গলবার, ২১শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৫ই জুলাই, ২০২২ ইং

সাংবাদিক পিপলুর পাশে দাঁড়ালেন মন্ত্রী ডিসি এসপি

নগর২৪/বেলায়েত /নাটোর জেলা প্রতিনিধিঃ


নাটোরের সিনিয়র সাংবাদিক ইউনাইটেড প্রেস ক্লাবের সভাপতি সমকাল ও একুশে টেলিভিশনের নাটোর প্রতিনিধি নবীউর রহমান পিপলু (৬৫) করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়েছেন। গত সোমবার রাত ৯টায় নাটোরের সিভিল সার্জন ডা.মিজানুর রহমান তার রিপোর্টের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। বুধবার তাকে নাটোর সদর হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।তিনি করোনা আক্রান্ত হবার পর ইউনাইটেড প্রেসক্লাবের সাংবাদিকরা তার চিকিৎসার জন্য তৎপরতা শুরু করে।যোগাযোগ করা হয় বিভিন্ন হাসপাতাল ও প্রশাসনের বিভিন্ন মহলে।

খবর পেয়ে তার চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক,নাটোরের জেলা প্রশাসক মো. শাহরিয়াজ ও নাটোর পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা।এছাড়া তারা সার্বক্ষণিক তার চিৎিসার খোজ খবর রাখছেন।একই সাথে নাটোরের সিভিল সার্জন ডা. মিজানুর রহমান ও সদর হাসপাতালের আবাশিক চিকিৎসক ডা. মুনজুর রহমান সার্বক্ষণিক তার চিকিৎসার বিষয়ে তদারকি করছেন।

নাটোর সদর হাসপাতালের আবাশিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. মুনজুর রহমান জানান, সাংবাদিক পিপলু দীর্ঘদিন থেকে ডায়বেটিস রোগে ভুগছেন। এরপরও কোভিড-১৯ এর আপডেট গাইড লাইন অনুসারে তার চিকিৎসা শুরু করা হয়েছে। জানা যায়, সাংবাদিক পিপলু গত বুধবার জ্বর ও কাশিতে আক্রান্ত হন। এরপর বৃহস্পতিবার সদর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে নমুন দেন। গত সোমবার তার রেজাল্ট পজেটিভ আসে। তিনি প্রথম একদিন বাড়িতেই চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। পরে শ্বাস কষ্টসহ অন্যান্য সমস্যা দেখা দিলে হাসপাতালে ভর্তি হন।

তার পরিবার সূত্রে জানা যায়, হাসপাতালে ভর্তির পর বিভিন্ন ঔষধ ও পরীক্ষা নিরীক্ষা করা হয়েছে। এরপর তার চিকিৎসা শুরু হয়। অত্যন্ত ব্যয়বহুল চিকিৎসার ব্যয় বহণ করা প্রায় অসম্ভব বলে জানান তার স্ত্রী। এ জন্য তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন। এদিকে খবর পেয়ে নাটোরের পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা একটি অক্সিজেন সিলিন্ডার এবং ইতিপূর্বে আক্রান্ত পুলিশ সদস্যরা যেসকল ঔষধ খেয়ে সুস্থ্য হয়েছেন সেগুলো পাঠিয়েছেন, চিকিৎসার জন্য করেছেন অর্থ সহায়তা।

জেলা প্রশাসক মো. শাহরিয়াজ উন্নতমানের খাবার পরিবেশনের জন্য প্রাথমিক অর্থ সহায়তা পাঠিয়েছেন, এছাড়া আজ পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দেখা করবেন জেলা প্রশাসক, সার্বিক সহায়তা যা প্রয়োজন তা তিনি করবেন বলে আশ্বস্ত করেছেন। এদিকে তথ্য ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক ফোন করে খোঁজখবর নিয়েছেন, আশ্বস্ত করেছেন এই সাংবাদিক নেতাকে।

দুঃসময়ে সাংবাদিকদের পাশে থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন তিনি । সমকাল সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) মুস্তফিজ শফি, বিশেষ প্রতিনিধি রাজীব নুর তার বর্তমান স্বাস্থ্যের খোঁজ খরব নিয়েছেন। এ ব্যাপারে প্রবীণ সাংবাদিক নবীউল রহমান পিপলু সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে নগর টুয়েন্টি ফোর জানান,বর্তমানে তিনি কিছুটা সুস্থ রয়েছেন,পূর্ণাঙ্গ সুস্থতার জন্য সকলের কাছে দোয়া কামনা করেছেন এবং সার্বিকভাবে সহযোগিতা প্রত্যাশা করেছেন।

দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।