• আজঃ শনিবার, ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৮শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

বিয়ের আগে মেয়েদের যেসব গুনাবলী দেখে বিয়ে করা উচিৎ

বিয়ের পর নানা ধরণের অশান্তি লেগেই থাকে এই রকম দৃশ্য অনেকের সংসারেই দেখা যায়। কিন্তু তখন তো আর কিছু করার উপায় থাকে না। তাই বিয়ের বিষয়ে খুব সাবধাণতা অবলম্বন করা দরকার। জীবনের বাকি সময় যার সাথে কাঁ’টাবেন সে কেমন হবে?

এ ক্ষেত্রে অনুমান অবশ্য কাজে লাগে, কিন্তু সবক্ষেত্রে অনুমান সঠিক হয় না । উদাহ’রণ স্বরূপ: মে’য়েরা অনুমান করে যে তাকে যত সুন্দর দেখাবে, ছে’লেরা তাকে তত পছন্দ করবে।

অনুমানটি অনেকাংশে সত্যি, কিন্তু সৌন্দর্য ছাড়াও, আরও অনেক কিছু আছে, যা ছে’লেরা পছন্দ করে। এখানে কিছু বৈশিষ্ট্যের কথা বলব যা সাধারণত ছে’লেরা পছন্দ করে, মে’য়েদের কাজে লাগতে পারে।

একটু সরল ও ধার্মিক প্রকৃতির মে’য়েকে বিয়ে করুন। কারণ নামাজের গুণ যার মধ্যে নাই সে কখনো আপনাকে সুখি করতে পারবে না। যে সব মে’য়েদের মধ্যে নিরবতা এবং কোমলতা বা যারা বেশিরভাগ সময় নিরব ও চুপচাপ থাকে, অনেক আস্তে আস্তে কথা বলে, অনেক নরম স্বভাবের এমন মে’য়ে পছন্দ করুন। সুশিক্ষায় যে শিক্ষিত তাকে বিয়ে করুন। তাহলে আপনার সংসার হবে সৃজনশীল।

যেসকল মে’য়ে তাদের কথায় কাজে সৎ এবং কথা দিয়ে কথা রাখে এই রূপ মে’য়েকে বিয়ের জন্য সিলেক্ট করুন। দায়িত্ববান মে’য়েকে বিয়ে করুন। পরিষ্কার –পরিচ্ছন্ন মানুষকে সবাই পছন্দ করে, তাই আপনার বৌ যেন অ’পরিষ্কার কোন মে’য়ে না হয় সেদিকে লক্ষ রাখু’ন। সর্বপরি সৎ এবং চরিত্রবান মে’য়েকে বিয়ে করুন।

এই সাতটি বৈশিষ্ট যার মধ্যে থাকবে সে অবশ্যই ভাল মানুষ। এই রূপ মানুষকে বিয়ে করলে সুখি হওয়ার সম্ভ’বনা শতভাগ। তবে মে’য়েরা তাদের পাত্র পছন্দ করার ক্ষেত্রেও এই বৈশিষ্টগুলো উ’ল্টো করে ভেবে জীবনসঙ্গী বেছে নেবেন।