• আজঃ মঙ্গলবার, ২১শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৫ই জুলাই, ২০২২ ইং

নাটোরে সিংড়া উপজেলা বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস ২০২০ খ্রিঃ স্বাস্থ্য বিধি মেনে উদযাপন

মোঃ বেলায়েত হোসেন নাটোর জেলা প্রতিনিধিঃ


মহামারি কোভিড-১৯ কে প্রতিরোধ করি,নারী ও কিশোরীর সুস্বাস্থ্যের অধিকার নিশ্চিত করি, এই প্রতিপাদ্য নিয়ে নাটোরের সিংড়া উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ের আয়োজনে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস পালিত হয়েছে। শনিবার সকালে সিংড়া উপজেলা হল রুমে দিবসটি উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সামাজিক দুরত্বে বজায় রেখে অনুষ্ঠানে শুরু হয় -উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ শফিকুল ইসলাম শফিকের সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য দেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ আমিনুল ইসলাম,উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা শাকিয়া হায়দার,মেডিক্যাল অফিসার (এমসিএইচ-এফপি) ডাঃ মেহেদী মাহবুব পাভেল,উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ কামরুল হাসান কামরান,মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শামীমা হক রোজী, তাজপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মিনহাজ উদ্দিন পরিকল্পনা দপ্তরে মাসুদ পারভেজ, পরিবার পরিকল্পনা পরিদর্শক রাকিব হোসাইন সহ অন্যান্য ও কর্মচারীগণ।

অনুষ্ঠানে কর্মক্ষেত্রে পরিবার পরিকল্পনা ,মা ও শিশু স্বাস্থ্য কার্যক্রমে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখায় বিভিন্ন ক্যাটাগারিতে ৪জন শ্রেষ্ঠ কর্মী ও ৩টি প্রতিষ্ঠানকে সন্মাননা স্মারক ও সনদ তুলে দেওয়া হয়। সন্মাননা প্রাপ্ত শ্রেষ্ঠ ৪ জন কর্মীরা হলেন ইটালী ইউনিয়নের, পরিবার কল্যাণ সহকারী রেজেকা পরভীন, শেরকোল ইনিয়নের পরিবার পরিকল্পনা পরিদর্শক সিদ্দিকুর রহমান ইটালী ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ওপরিবার কল্যাণ কেন্দ্রের উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিক্যাল অফিসার, মমতাজুল ইসলাম, সদর ক্লিনিকের পরিবার কল্যাণ পরিদর্শকা নাজনীন আক্তার, ৩ টি প্রতিষ্ঠান হলো সুর্যের হাসি নেওয়ার্ক,চামারী ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র এবং তাজপুর ইউনিয়ন পরিষদ।
এছাড়াও উপজেলায় নরমাল ডেলিভারী করা জন্য হাতিয়ান্দহ ইউনিয়নের পরিবার কল্যাণ পরিদর্শকা সুলতানা পারভীন-কে সন্মাননা স্মারক তুলে দেওয়া হয়।

উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা সহকারী মোঃ মাসুদ পারভেজ এর সাথে কথা বললে নগর টুয়েন্টি ফোর বলেন , সিংড়া উপজেলায় নরমাল ডেলিভারী জন্য পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের ০৮ টি ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্র রয়েছে জনবলের ও সঠিক নির্দেশনা অভাবে তাও সম্ভব হচ্ছে না এছাড়ও জটিল গর্ভবতী মায়ের জন্য যদি সিজার/অপারেশন করার দরকার হয় অত্র উপজেলায় সরকারী ভাবে কোন ব্যবস্থা না থাকায় জেলা সদর হাসপাতে অথবা নাটোর মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে রেফার করতে হয় এত করে মাতৃ ও শিশু মৃতুর ঝুঁকি থাকে।সিংড়া উপজেলার জনসংখ্যা, সক্ষম দম্পতি , বিবেচনা করে অত্র উপজেলায় মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র স্বাপন করা খুবই জরুরি। অত্র উপজেলায় মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র স্থাপন করা হলে এলাকা সাধারণ মানুষে বিনা মূল্যে উন্নতর চিকিৎসা সেবা মা ও শিশু স্বাস্থ্য সেবা সহ নিরাপদ প্রসব সেবা পাবেন।

দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।