নোয়াখালীতে আসামীর বদলে গরু গ্রেফতার!

নিজস্ব প্রতিবেদক, নোয়াখালীঃ


নোয়াখালী সোনাইমুড়ী উপজেলার সায়মন হত্যা মামলার আসামী মীর হোসেন মীরার বাড়ীতে অভিযান চালিয়ে আসামীর বদলে দুইটি গৃহপালিত গরু নিয়ে আসেন সোনাইমুড়ী থানার এসআই ফারুক। এরপর গরু দুইটিকে বর্গা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।
এ ঘটনা প্রকাশ হলে পুরো উপজেলায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়।

অভিযোগে বলা হয়, ‘ উপজেলার আলোকপাড়া গ্রামের আশরাফ আলী ব্যাপারী বাড়ীতে অভিযান পরিচালনা করে আসামী ধরতে ব্যার্থ হয়ে আসামী পক্ষের দুইটি গরু নিয়ে যান এসআই ফারুক।

গরু দুইটির আনুমানিক বাজারমূল্য ২ লক্ষ টাকা। গরু দুইটিকে উপজেলার বজরা ইউপির মুটুবী গ্রামের সিনএনজি চালক আনসার আলীর নিকট বর্গা দেয় হয়।’

জানা যায়, আনসার আলী বর্তমানে গরু দুইটিকে লালন পালন সহ যাবতীয় পরিচর্যা করে যাচ্ছেন।
ভুক্তভোগী পরিবার জানান, ‘আইন অনুযায়ী অপরাধিদের বিচার হবে কিন্তু আমাদের পরিবারের আয়ের অবলম্বন ও কর্জ্য করে

কেনা গরু দুইটকে জোরপূর্বক নিয়ে গিয়ে আমাদেে প্রতি জুলুম করা হয়েছে।’
এ ঘটনায় পুরো উপজেলা জুড়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। জনগনের মধ্য মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

ঘটনার বিষয় এসআই ফারুক জানান, আসামীর মা গরুটিকে নিয়ে রাতে অন্ধকারে পালিয়ে যাওয়ার সময় তার থেকে আমরা গরু দুইটিকে উদ্ধার করি।কর্তৃপক্ষের নির্দেশক্রমে গরু দুইটিকে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে।
উল্লেখ্য, সায়মন হত্যামামলার প্রধান আসামী মীরাকে গতকাল রাতে ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে আসা হয়েছে।