লোড বন্ধ করুন
  • আজঃ রবিবার, ১০ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৩শে জানুয়ারি, ২০২২ ইং

গাইবান্ধা জেলায় করোনায় আক্রান্ত একদিনে ৪৮ , সংখ্যা বেড়ে দাড়ালো -১৩৫ এ

আবু নাসের সিদ্দিক তুহিন(গাইবান্ধা)প্রতিনিধিঃ


গাইবান্ধা জেলায় এপর্যন্ত কোভিড উনিশ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। যাদের ৩ জনের মৃত্যুর পরে সনাক্ত হয় করোনা আর একজনের মৃত্যুর আগে ।

গতকাল ৯ জুন রাত ৮ হতে ৮৭ জন থাকলেও ১০ জুন রাত আটটা পর্যন্ত গত ২৪ ঘন্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সনাক্ত হয় ৪৮ টি পরীক্ষাকৃত ২০৪ টি নমুনা এর মধ্যে ফলাফলে ঢাকা থেকে ৪৩ টি ও রংপুর হতে ৫ টির ফলাফল পজেটিভ পাওয়া যায়।

এরমধ্যে আক্রান্ত ৪৮ জনের মধ্যে সাদুল্যাপুরে ২ জন, গোবিন্দগঞ্জে ২১ জন, পলাশবাড়ীতে ৪ জন,সুন্দরগঞ্জে ৫ জন,সাঘাটায় ৭ জন, ফুলছড়িতে ৫ জন,গাইবান্ধা সদর উপজেলায় ৪ জন । সবচেয়ে বেশী আক্রান্ত হয়েছে গোবিন্দগঞ্জে এ উপজেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৬৮ জনে দাড়িয়েছে।

গাইবান্ধা জেলায় ১০ জুন করোনা আক্রান্ত রোগী বেশ মিলেছে কিন্ত তারপরও জনগণের মাঝে আজও জনসচেতনতা বাড়ছে না। স্বাস্থ্য বিধি মানছে না বিধায় দিন দিন হু হু করে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা।

জেলায় সর্বমোট করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাড়ালো ১৩৫ জনে দারিয়ে গেছে, আক্রান্ত ২২ জন রোগী সুস্থ হওয়ায় তাদেরকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে তারা বর্তমানে সুস্থ্য স্বাভাবিক জীবন যাপন করছেন।

বর্তমানে ১০৯ জন আইসোলিসনে রয়েছেন। এ পর্যন্ত জেলায় পরীক্ষার জন্য ১৭ শত টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে এরমধ্যে পরীক্ষা শেষে ফলাফল মিলেছে ১১ শত ২৬ টির। ফলাফলের অপেক্ষায় ৫৭৪ টি নমুনা সংগ্রহকৃত রয়েছে। পর্যায়ক্রমে এ গুলোর ফলাফল পাওয়া যাবে।

তবে করোনা ভাইরাস সন্দেহে নানা উপসর্গে নতুন করে ৬৪ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় হোম কোয়ারেন্টাইনে চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫২৮ জন। এছাড়াও ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইন শেষে ৩ জনকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে।

জেলায় ৫২৮ জন চিকিৎসাধীন রোগী হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে। এদিকে করোনা ভাইরাস কোভিড ১৯ এর এই সময় কালে জেলা ৭ টি ও উপজেলার ৪ টি পৌরসভায় ২ লাখ ১ হাজার ১ শত পরিবার কে ও ১৬ হাজার শিশুকে দেয়া হয়েছে খাদ্য সহায়তা