• আজঃ মঙ্গলবার, ২১শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৫ই জুলাই, ২০২২ ইং

মোবাইল ফোন বিস্ফোরন , কলেজ ছাত্রের মৃত্যু

নগর২৪ ডেস্কঃ


মোবাইল ফোন চার্জে লাগিয়ে কথা বলার সময় বি’স্ফোরণে দ’গ্ধ কলেজছাত্র অ’পূর্ব দাস মা’রা গেছে। আজ মঙ্গলবার (৯ জুন) সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতা’লের বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃ’ত্যু হয়।

নি’হত অ’পূর্ব দাস নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও জিআর ইনস্টিটিউশন মডেল স্কুল এন্ড কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র ছিলো।

গত রোববার (০৭ জুন) সকালে সোনারগাঁও পৌরসভা’র জয়রামপুর গ্রামে মোবাইল ফোন চার্জে লাগিয়ে কথা বলার সময় মোবাইল বি’স্ফোরণে ঘরে আ’গুন লেগে যায়। এ সময় মা’রাত্মক ভাবে দ’গ্ধ হয় কলেজ ছাত্র অ’পূর্ব দাস ও তার মা।

পরে মা ও ছে’লেকে উ’দ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতা’লের বার্ণ ইউনিটে ভর্তি করা হয়। দু’দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর আজ সকালে অ’পূর্বর মৃ’ত্যু হয়।

এলাকাবাসী জানায়, সোনারগাঁও পৌরসভা’র জয়রামপুর গ্রামের বাসিন্দা ও সোনারগাঁও উপজে’লা নির্বাহী কর্মক’র্তার অফিসের কর্মচারী মো. মিজানুর রহমানের ভাড়াটিয়া বানু রানী দাসের ছে’লে অ’পূর্ব রোববার সকালে মোবাইল চার্জ দেওয়া অবস্থায় কথা বলছিল।

এ সময় বিদ্যুস্প’র্শ হয়ে মোবাইল বি’স্ফোরনে শরীরে আ’গুন লেগে মা’রাত্মকভাবে দ’গ্ধ হয়। মা বানু রানী ছে’লেকে বাঁ’চাতে এসে সেও দ’গ্ধ হয়। বাড়ির মালিক মিজানুর রহমান জানান, তাদের শরীরে কিভাবে আ’গুন লেগেছে তা বলতে পারছি না।

তবে সে যখন ঘর থেকে বেরিয়ে আসে তখন তার কানে হেডফোন ও চার্জারের তার জড়ানো ছিল। এ সময় তার মুখ ও বুক ঝলসানো ছিল। ঘরে তার মায়ের মা’থার চুল আ’গুনে পোড়া ছিল। আ’গুনে খাট, তোশক ও আসবাবপত্র পুড়ে গেছে। অ’পূর্ব ও তার মাকে উ’দ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতা’লে পাঠানো হয়।

দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।