• আজঃ মঙ্গলবার, ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

করোনা চিকিৎসায় আবিস্কৃত ওষুধ খেয়ে যা হলো আবিস্কারকের

নগর২৪/পারভেজ



করোনার ওষুধ আবিষ্কার করতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে পুরো বিশ্ব। এর ব্যতিক্রম নয় ভারতও। তবে সম্প্রতি ভারতের চেন্নাইয়ে নিজের তৈরি ‘করোনার ওষুধ’ খেয়ে মারা গেছেন এক আয়ুর্বেদিক ফার্মাসিস্ট।

শহরের টি নগরের আয়ুর্বেদিক কোম্পানি ‘সুজাতা বায়োটেক’ এর ফার্মাসিস্ট এবং ম্যানেজার হিসেবে কাজ করতেন শ্রীবানেশন। ৪৭ বছরের এক ব্যক্তি। ৪৭ বছর বয়সী শ্রীবানেশন এর আগে একাধিক ওযুধ তৈরি করেছেন।

কোম্পানির ৬৭ বছরের মালিকের ওপর এই পাউডারের পরিক্ষা করেন তিনি। পাউডার খাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ওই ব্যক্তি অজ্ঞান হয়ে যান। এরপর সেই পাউডার যাচাই করতে গিয়ে পানিতে গুলিয়ে নিজেও খেয়ে ফেলেন শ্রীবানেশন।

তবে এই পরিক্ষার পর কোম্পানির মালিক বেঁচে গেলেও, মারা গেছেন ওষুধের তৈরিকর্তা শ্রীবানেশন।পুলিশের দাবি,শ্রীবানেশনের ধারণা ছিল ওই পাউডার করোনার সঙ্গে লড়াই করতে সক্ষম। এতে রক্তে প্লেটলেটের সংখ্যা বৃদ্ধি পায়।

এ বিষয়ে কোম্পানির মিডিয়া ম্যানেজার এন এস ভাসান সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন,আমাদের সব ওষুধই আয়ুর্বেদিক। কিন্তু শ্রীবানেশন যে ওষুধ তৈরি করে ছিল তা একটি রাসায়নিক।

-তথ্য জি নিউজ