• আজঃ সোমবার, ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

রোজ কমলা খাওয়ায় ৬ টি বিশেষ উপকারিতা

ভিটামিন সি এর ভান্ডার কমলালেবু কেবল স্বাদই নয়, নানা রোগ প্রতিকারের জন্য এই ফলের কদর অনেক। বিশেষজ্ঞরা বলেন প্রতিদিনের ডায়েটে কমপক্ষে ১টি করে কমলা রাখতে। কেননা, কমলালেবুর বিশেষ কিছু গুণ শরীরকে তরতাজা রাখতে সাহায্য করে।

বিশেষজ্ঞদের মতে,  দৈনিক যতটুকু ভিটামিন ‘সি’ প্রয়োজন তার প্রায় সবটাই আছে একটি কমলায়। এই ভিটামিন সি ক্যান্সার প্রতিরোধক, স্বাস্থ্যকর রক্ত তৈরিকারক এবং ক্ষত আরোগ্যকারী হিসেবে খুবই উপযোগী। এছাড়া জন্মগত ত্রুটি এবং দুরারোগ্যের জন্য ভালো কাজ করে।

সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ন বিষয় হলো, বর্তমান বিশ্ব আতঙ্ক করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধেও যুদ্ধ করে এই কমলালেবু। মানবদেহে ভাইরাসটির শুরুতে যদি বেশি বেশি ভিটামিন সি জাতীয় খাবার যেমন কমলালেবু বা অন্যান্য খাবার খাওয়া যায় তাহলে করোনা শরীরে খুব বেশি বিস্তার লাভ করতে পারেনা। এমনটাই বলছেন বিশেষজ্ঞরা।

এছাড়াও বেশ কটি উপকারিতা রয়েছে এই কমলালেবুর। চলোন তাহলে জেনে নেই কি সেই উপকারিতাগুলো –

  • কমলায় ফাইবারের পরিমাণ বাড়লে রক্তে ইনসুলিনও বাড়ে। একটি মাঝারি আকারের কমলালেবুতে ৩ গ্রাম ফাইবার থাকে। ফলে ইনসুলিনের
  • পরিমাণ বাড়িয়ে রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে পারে কমলালেবু।
  • মেলে ফাইবার, পটাশিয়াম, ভিটামিন সি, কোলিন। এগুলি হার্টের স্বাস্থ্য রক্ষা করতে বিশেষ উপকারে আসে।
  • কমলার উচ্চমাত্রার পুষ্টিগুণ হচ্ছে ফ্ল্যাভনয়েড যা ফুসফুস এবং ক্যাভিটি ক্যান্সার প্রতিরোধে কার্যকর। তাই ক্যান্সার থেকে রক্ষা পেতে প্রতিদিন
  • ১টি কমলা খাওয়া উচিত। হৃদযন্ত্রকে সক্রিয় রাখতে, হৃদস্পন্দনের গতি ঠিক রাখতে এই উপাদানের ভূমিকা অনেক।
  • আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশনের গবেষণা অনুসারে নিয়মিত কমলালেবু বা আঙুর জাতীয় ফল খেলে স্ট্রোকের ঝুঁকি কমে। মস্তিষ্কে রক্ত
  • চলাচলের পথকে মসৃণ ও অনুকূল করতে কমলালেবু ও আঙুর জাতীয় ফলের পটাশিয়াম ও কোলিন কাজে আসে।
  • রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণেও কমলার পটাশিয়াম সোডিয়াম সাহায্য করে। তাই উচ্চ রক্তচাপের রোগীদের ডায়েটে রাখা উচিত কমলালেবু।
  • ত্বক ও চুলের উপকার করে ভিটামিন সি। চুলের বৃদ্ধি, ত্বকের ঔজ্জ্বল্য এসব ধরে রাখতে ভিটামিন সি বিশেষ ভূমিকা পালন করে। কমলালেবুতে
  • যেহেতু প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি রয়েছে, তাই ত্বক ও চুল ভাল রাখতে বেশি বেশি কমলা খেতে পারেন।