• আজঃ বুধবার, ৬ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২১শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

ইউরোপে কুকুরের পাসপোর্ট

ইউরোপের লোকেরা কুকুর পুষতে ভালবাসে । অনেকের রয়েছে বিভিন্ন জাতের অনেক দামী কুকুর ।আদর যত্নের কমতি নেই এতটুকু ।এদেশের লোকজন অবকাশ ও উপভোগের জন্য প্রায়ই ভ্রমণ করে বিভিন্ন দেশ ।তাদের সফর সঙ্গী হয় প্রিয় কুকুর । তাই কুকুরের ও প্রয়োজন হয় পাসপোর্ট ।

ছবি কুকুরের পাসপোর্ট

এদেশর প্রতিটি কুকুরের ঘারে লাগানো থাকে একটি মাইক্রো চিপ ।যেখানে লিপিবদ্ধ বদ্ধ থাকে কুকুরের জীবন বৃত্তান্ত ।অর্থাত কুকুরের নাম, জন্ম তারিখ, পিতামাতার নাম, জাত, মালিকের নাম ঠিকানা, জাতীয় পরিচয়ের নাম্বার সহ ফোন নাম্বার ।পুলিশ বা যেকোন ভেটেনারী ডাক্তারদের স্কিনং মেশিনে অতি সহজেইকুকুরের পরিচয় মিলে ।

কুকুর ,বিড়ালের পাসপোর্ট ইস্যু করে এদেশের ভেটেনারী ক্লিনিক থেকে ।কুকুরের স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর এন্টিরেবিস ভেক্সিন দেওয়া হয় ।এই ভেক্সিনের মেয়াদ যতদিন কুকুরের পাসপোর্টের মেয়াদ তার চেয়ে একদিন কম ।অর্থাত ভেক্সিনের মেয়াদ এক বৎসর হলে, এবং তা ৩০ জানুয়ারি ২০১৯ প্রয়োগ করা হলে আগামী ২৯ জানুয়ারি২০২০ পর্যন্ত কার্যকর ।বিভিন্ন শহরে পাসপোর্টের ফি র তারতম্য রয়েছে ।তবে ৪০ থেকে ৬o ইউরোর মাঝে সীমাবদ্ধ ।

-এ এফ ফি ।