• আজঃ রবিবার, ১২ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

চীনে করোনা ভাইরাস ধ্বংস করার যন্ত্র পাঠাচ্ছে ফিনল্যান্ড

করোনা ভাইরাসের উপশম করেত ফিনল্যান্ডের এক কোম্পানি ভাইরাস ঠেকাতে বায়ু বিশুদ্ধকরণ ডিভাইস জরুরিভিত্তিতে পাঠাচ্ছে চীনে।

এই বায়ু বিশুদ্ধকরণ যন্ত্র শুধু ভাইরাস, ব‌্যাকটেরিয়াকে পরিশোধন করেনা সেগুলোকে ধ্বংস করতে সক্ষম শক্তিশালী একটি ইলেকট্রিক সিস্টেম। গেনানোর এই যন্ত্র অন্য যেকোন বায়ু বিশুদ্ধকরণ যন্ত্র থেকে শতগুণ বেশি শক্তিশালী।

ফিনল‌্যান্ডের মিক্কেলিতে অবস্থিত স্থানীয় কোম্পানি গেনানো ইতোমধ্যে তাদের উতপাদন বাড়িয়েছে দ্বিগুণ। নিয়োগ দেয়া হয়েছে অতিরিক্ত কর্মী। পুরোদমে চলছে উৎপাদন কার্যক্রম।

এ কোম্পানির কর্মীরা অভারটাইম কাজ করে অতি দ্রুত ২০০ বায়ু বিশুদ্ধকরণ সামগ্রী চীনে পৌছানোর জন্য কাজ করছে। কোম্পানি সারা বছর বিভিন্ন হাসপাতাল, ল্যাবরেটরি এবং ক্লিনিকের জন্য যে পরিমাণ ডিভাইস প্রতি বছর তৈরী করে এখন তার দ্বিগুণ শুধু চীনে পাঠানোর জন্যই তৈরী করা হচ্ছে। গত এক সপ্তাহে এই ২০০ যন্ত্রের অর্ডার চীন থেকে আসলেও সারা বছর তাদের উৎপাদনের পরিমাণ ৫০ থেকে ১০০ টি।

কোম্পানির সিইও নিকলাস স্কগসটের সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন যে, এই বায়ু বিশুদ্ধকরণ যন্ত্র সরাসরি চীনের উহান প্রদেশে পাঠানাে হবে। উহান হচ্ছে চীনে করোনা ভাইরাসের উপদ্রুত মূল এলাকা।

নিকলাস বলেন, চীনের উহানে ২ হাজার শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতাল যেখানে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিতসা চলছে সেখানে হাসপাতালের জন্য তারা অনুদান হিসাবেও পাঠাচ্ছেন এসব বায়ু বিশুদ্ধকরণ যন্ত্র।

এই বায়ু বিশুদ্ধকরণ যন্ত্রের দাম আকার এবং ব্যবহারের চাহিদাভেদে প্রতিটি ৫ হাজার থেকে ১০ হাজার ইউরো।

এখন পর্যন্ত কোম্পানির মূল বাজার ছিল ফিনল্যান্ডের পাশাপাশি নরওয়ে এবং সুইডেন। বর্তমানে সৌদিআরব, কুয়েত, ওমানের পাশাপাশি এশিয়ার চীন, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়াসহ বিভিন্ন দেশে তারা এ যন্ত্র রফতানি করছে।

ফিনল্যান্ডের এই কোম্পানি গেনানো এর আগে ২০০৩ সালে সারস ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর একইভাবে বায়ু বিশুদ্ধকরণ যন্ত্র সরবরাহ করেছিল। চীনের নানজিং শহরে সরকারি সংস্থার মাধ্যমে এই যন্ত্র পাঠানো হয়। তাদের মাধ্যমে নতুন করে এসব যন্ত্রের দ্রুত আমদানি করতে অর্ডার দেয়া হয়।