• আজঃ মঙ্গলবার, ৫ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২০শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

সন্তান হত্যার বিচার দাবিতে মানববন্ধন করলেন দুঃখিনী মা

শিশু সন্তান সাব্বির হত্যার বিচার দাবিতে মানববন্ধন করেছেন দিনমুজুর মা আন্না বেগম (৪২)। গতকাল (৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে নড়াইল প্রেসক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় আন্না বেগমের সাথে ব্যানার হাতে দাঁড়িয়ে ছিল তার আরেক শিশু সন্তান।

কান্নাজড়িত কণ্ঠে আন্না বেগম সাংবাদিকদের বলেন, আমার শিশু সন্তান সাব্বির হত্যার দেড় বছর অতিবাহিত হলেও পুলিশ কাউকে শনাক্ত করতে পারেনি। স্বামী পরিত্যক্তা আন্না আরো বলেন, গরিব মানুষ বলে কী আমরা বিচার পাবো না?
সাব্বিরের ছোট বোন দ্বিতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী রোকসানা জানায়, তাদের দরিদ্র সংসারে খাবার যোগাতে তার ভাই পড়ালেখার পাশাপাশি ভ্যান চালাতো। কিন্তু কেন ভাইকে হত্যা করা হলো?

চতুর্থ শ্রেণির মেধাবী ছাত্র সাব্বির ২০১৯ সালের ১৫ মার্চ বিকেলে বাড়ি থেকে তার ব্যাটারি চালিত ভ্যান নিয়ে বেরিয়ে নিখোঁজ হয়। এর দু’দিন পর ১৭ মার্চ সন্ধ্যায় নড়াইল-গোবরা সড়কের কাড়ারবিল এলাকা থেকে সাব্বিরের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ সময় তার ভ্যানটি খোয়া যায়।

এনজিও থেকে ৫০ হাজার টাকা ঋণ নিয়ে সাব্বিরকে ব্যাটারি চালিত ভ্যানটি কিনে দেন মা আন্না বেগম। সাব্বির নড়াইলের কালিয়া উপজেলার খড়রিয়া গ্রামের শাহাদাত হোসেনের ছেলে। বাবা শাহাদাত তাদের কোনো খোঁজখবর না নেয়ায় মায়ের সঙ্গে নড়াইল পৌর এলাকার বিজয়পুরে নানা বাড়িতে থাকত সাব্বির। সেই সঙ্গে ছোট বোনও।

এ ঘটনায় সাব্বিরের মা আন্না বেগম বাদি হয়ে ওই বছরের (২০১৯) ১৯ মার্চ নড়াইল সদর থানায় অজ্ঞাতনামা মামলা দায়ের করেন। মামলাটির কোনো অগ্রগতি না হওয়ায় বাদির আবেদনের প্রেক্ষিতে সিআইডিতে হস্তান্তর করা হয়।

এ ব্যাপারে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এস আই আরমিন বলেন, মামলাটি চারমাস পর সিআইডিতে হস্তান্তর হয়। তখন সন্দেহভাজন তিনজনকে আটক করা হয়েছিল। কিন্ত কোনো ক্লু পাওয়া যায়নি। আমরা দোষীদের শনাক্তে কাজ করছি।