• আজঃ মঙ্গলবার, ৫ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২০শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

দু’দিন পর পুলিশ কনস্টেবলের লাশ উদ্ধার, শিশু সন্তান এখনো নিখোঁজ

নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার সীমান্তবর্তী কালনাঘাটে নৌভ্রমণে এসে মধুমতি নদীতে নিখোঁজ পুলিশ কনস্টেবল মোহাম্মদ মুসার (২৫) মরদেহ দু’দিন পর মহিষাপাড়াঘাট এলাকা থেকে ভাসমান অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে।

রোববার (৩০ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তবে তার ছয় মাসের ছেলে সন্তানকে এখনো উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। পুলিশ কনস্টেবল মুসার বাড়ি নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার চাঁচই গ্রামে। তিনি ঢাকায় কর্মরত ছিলেন। সম্প্রতি ছুটিতে বাড়িতে আসেন।

লোহাগড়া থানার ওসি সৈয়দ আশিকুর রহমান জানান, মোহাম্মদ মুসার মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। গত ২৮ আগস্ট শুক্রবার সন্ধ্যায় সপরিবারে নৌভ্রমণে এসে কালনাঘাটে নির্মাণাধীন সেতুর পিলারের সঙ্গে ধাক্কায় পুলিশ কনস্টেবল বাবা মোহাম্মদ মুসা ও তার শিশু সন্তান মধুমতি নদীতে নিখোঁজ হয়।

তাদের বহনকারী ট্রলার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সেতুর পিলারে ধাক্কা লেগে মুসার কোল থেকে শিশু সন্তান মধুমতি নদীতে পড়ে যায়। সন্তানকে উদ্ধার করতে মুহূর্তেই নদীতে ঝাপ দেন মুসা। একপর্যায়ে মুসাও নিখোঁজ হন।

এদিকে গতকাল শনিবার ফায়ার সার্ভিস ও নৌবাহিনীর সদস্যরা মুসা ও তার শিশু সন্তানের লাশ উদ্ধারের চেষ্টা করেও তীব্র স্রোতের কারণে তা ব্যর্থ হয়। এ ঘটনায় মুসার পরিবারসহ এলাকায় শোকাবহ পরিবেশ বিরাজ করছে।