• আজঃ মঙ্গলবার, ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

ভাইরাস করোনা আমাদের করনীয়ঃতবীব মাহমুদ

ভাইরাস করোনা মানুষের মাঝে এক আতংকের নাম। এ আতংকের বহিঃপ্রকাশ ব্যক্তিভেদে বিভিন্ন। আমার এক বন্ধু বাসা থেকে বের হচ্ছে না। অনেকে হ্যান্ডশেক করতে চাচ্ছেন না মজা করা। অনেকে মাস্ক পড়ছেন না, অনেকে পড়ছেন। আমার এক আংকেল করোনা ভাইরাস ডিটেক্ট করতে পারে এমন স্ক্যানার খুঁজছেন। বাড়িতে বসাবেন। তার সাথে দেখা করতে প্রতিদিন নানা ধরনের মানুষজন আসে। এরা সবাই হাই ক্লাস সিটিজেন। বাহিরে যাতায়াত আছে। বলাতো যায় না কে কোন দেশ থেকে করোনা নিয়ে এসেছে।
সে যাই হোক, করোনা একটি আতংক।

এই করোনা আমাদের দেশে টিকতে পারবে কি পারবে না এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন ❓

যদি টিকতে পারে তবে আমাদের কপালে দুর্ভোগ আছে। আমাদের আমলনামা মোটেও সুবিধার না। ঘনবসতির ঢাকা শহরে এই রোগ এলে অবস্থা কেরোসিন।

আর যদি করোনা আমাদের দেশে টিকতে না পারে তবে আমাদের সৌভাগ্য। আমরা সবাই সৌভাগ্যবান হতে চাই।

আমাদের করনীয় কী হতে পারে?

আমাদের অনেক কিছু করনীয় আছে। এত কিছু করনীয় যা নির্দিষ্ট করে বলা মুশকিল। এক কথায় বলতে গেলে, নিজের বিবেককে একটু জাগ্রত করুন। আপনি একা হাত-নাক-মুখ ধুয়ে পাক সাফ হয়ে আছেন। কিন্তু আপনার বাড়ির কাজের ছেলে সারাদিন দৌড়াদৌড়ি করে রাতে আপনাকে চা করে দিচ্ছে। চিনি মিশাতে গিয়ে হাঁচি আসতেই পারে। অতএব আপনাকে বেঁচে থাকতে হলে এখন অন্যকেও বাঁচিয়ে রাখতে সাহায্য করতে হবে। আপনি একা বাঁচতে চাইলেও পারবেন না। সবাইকে নিয়ে বাঁচতে হবে।

লক্ষ পথশিশু ঘর নাই যার
কোথায় সাবান পাবে হাত ধুবে তার?

সবাই একযোগে সচেতন হতে হবে। নতুবা গেম ওভার।