• আজঃ সোমবার, ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

আলেম সমাজ ও ইউটিউবার দের প্রতি খোলা চিঠিঃআল মামুন

বাংলাদেশের বর্তমান প্রেক্ষাপট যা আমরা সাধারণ মানুষের ধারণা অনুসারে বলা যায় সংকট ময় । ময়দানে হাজার হাজার আলেমের আবির্ভাব যা সত্যিই বলতে হয় সন্তোষজনক এবং পজিটিভ।

কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য আজকে আমাদের দেশে আলেম সমাজের মতবিরোধ মতপার্থক্যের কারণে আজকে দেখা যায় সাধারণ মানুষ দিশেহারা। আর এই সুযোগে কাদিয়ানী নামক ভন্ড, কাফের যারা তাদের এজেন্ডা গুলো বাস্তবায়ন করছে যা আমাদের জন্য খুবই লজ্জাজনক।

আজকে মুসলিম তরুণ তরুণী কেউ ড. আজহারীকে নিয়ে কেউ তাহেরীকে নিয়ে আবার কেউ হাফিজুর রহমান কে নিয়ে ট্রল করছে । বিতর্কিত টিকটকে এবং কিছু নামধারী লোভি ইউটিউবার আলেমদের বক্তব্য কাটছাট করে  ইউটিউবের মাধ্যমে আলেমদের নিয়ে নিজেদের ব্যাবসা আর ভাইরাল হওয়ার ধান্দায় ভিডিও আপলোড করে থাকে।

তাদের কাছে একটা প্রশ্ন আপনি কি মুসলিম ? যদি মুসলিম হয়ে থাকেন তাহলে অযথা কেন এই বিতর্কিত ভিডিও গুলোকে কেটে সমাজের মানুষের মাঝে বিবেধ সৃষ্টি করছেন?

আপনি আলেম ওলামাদের নিয়ে সমালোচনা করার কি এখতিয়ার রাখেন কী না বলে যাবেন?

আর আলেমদের নিয়ে যদি কিছু বলি সত্যি চোখে কোণে পানি এসে যায়। তাদের কাছে প্রশ্ন আপনারা জেনেশুনে হক্ব কে বাতিলের সাথে মিশ্রিত করা এবং অতি আবেগী হয়ে কথা বলা, আবার মুখের ভাষায় কুকুর কিংবা বিভিন্ন অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করা ফতোয়া দেওয়া অমুক কাফের অমুক অমুকদলের দালাল এই ধরনের বিতর্কিত কথা কেন কুরআনের তাফসিরে বলেন আমার বুঝে আসে না বলে যাবেন?

হক্ব কে গোপন করে বাতিলের হাত কে আরো শক্তিশালী করা এর কোনো মানে হয় ?

আপনাদের মাঝে মতোবিরোধ থাকতেই পারে কিছু মাসলা মাসায়েল নিয়ে, তাই বলে ওয়াজের ময়দানে প্রকাশ্যে কট্টর ভাষায় বলতে হবে কেন? আপনারা যে বিষয়গুলো নিয়ে মতবিরোধ ! ব্যাক্তিগতভাবে বলেন কয়জন পরামর্শের জন্য বা সংস্কারের উদ্দেশ্যে।

আজকে সারা বাংলাদেশের ত্রাসের রাজত্ব চলছে, গুম খুন ধর্ষণ লুটপাট হচ্ছে আমার দেশের সম্পদ আপনাদের কোনো খবর নাই আর আপনারা একজন আরেকজনের পেছনে কিভাবে মতবিরোধ সৃষ্টি করবেন কিভাবে দ্বন্ধ সৃষ্টি করা যায় আর কিভাবে ভাইরাল হওয়া যায় সেই চিন্তা ধারণা নিয়ে আজকে পবিত্র কুরআনের ময়দানে বা তাফসির মাহফিলে প্রতিযোগিতার হিড়িক চালাচ্ছেন।

কোথায় ভ্রাতৃত্ব কোথায় ভালোবাসা কোথায় সমঝোতা কোথায় সেই মনুষ্যত্ব?

সবশেষে একটি কথাই বলবো আজকে সমাজে আপনাদের আলেম সমাজের কারণে সমাজে মানুষে মানুষে এই বিভক্তি। অথচ হওয়ার কথা ছিলএক হও সকল মুসলিম , সকল বিবেধ ভুলে, ভুলত্রুটি ক্ষমা করে , আলোর মিছিলে।

ঐক্যের মাধ্যমে আলেমদের উচিৎ সমাজে এবং রাষ্ট্রের সকল স্তরে আল্লাহর বিধান’কে কায়েম করার প্রতিক্রিয়া দেশবিরোধী চাল বাজিকে প্রতিহত করা এবং সকল প্রকার ইসলাম বিদ্ধেসী জালেম পরাশক্তিকে রুখে দেওয়া, আলেম সমাজ ঐক্যবদ্ধের মাধ্যমে এই কাজ গুলো সফল করা ।

এই প্রতিজ্ঞা নিয়ে মাঠে ময়দানে কথা বলা হিংসা বিদ্বেষ কে কবর দিয়ে ইসলামের সুশীতল ছায়াতলে এক হয়ে কাজ করার প্রত্যয় শপথ নিয়ে কাজ করা।তাহলেই সম্ভব ইনশাআল্লাহ এই সমাজকে কলুষিত মুক্ত করা।

✍লেখকঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন