• আজঃ বুধবার, ৬ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২১শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

নেত্রকোনায় গৃহবধূকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মামলা, গ্রেপ্তার ২

নেত্রকোনার বারহাট্টায় গৃহবধূকে (১৯) তুলে নিয়ে গণধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এর প্রেক্ষিতে দুই যুবককে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

শনিবার (১০ অক্টোবর) দুপুরে বারহাট্টা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মিজানুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার (৮ অক্টোবর) বিকেলে গৃহবধূর স্বামী বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন।

গ্রেপ্তাররা হলেন— সদর উপজেলার ঠাকুরাকোনা এলাকার কামরুল হাসান (২৪) ও সতরশ্রী এলাকার শাহ আলম (২১)। তবে সুবল দাস ও রাজু মিয়া নামে আরও দুইজনকে এখনও গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।

ওসি মো. মিজানুর রহমান জানান, নেত্রকোনা সদর উপজেলার ঠাকুরাকোনা ইউনিয়নের ওই গৃহবধূ তার স্বামীর ওপর রাগ করে গত বুধবার রাতে বাবার বাড়ি বারহাট্টার আসমা ইউনিয়নের উদ্দেশ্যে রওনা দেন।

এসময় গৃহবধূর স্বামীর বন্ধু ইজিবাইকের চালক কামরুল হাসান ওই পথে ইজিবাইক চালিয়ে যাচ্ছিলেন। তখন গৃহবধূ তার গাড়িতে উঠে বাবার বাড়ির দিকে রওনা দেন। কিছুদূর গিয়ে ইজিবাইকটি নষ্ট হয়ে গেছে বলে কামরুল ওই নারীকে জানান। এরপর কামরুল অসৎ উদ্দেশ্য চরিতার্থ করার লক্ষ্যে তার অন্য আরও তিন বন্ধুকে মোটরসাইকেল নিয়ে ওই স্থানে আসতে বলেন।

পরে কামরুল বন্ধুর মোটরসাইকেলে ওই গৃহবধূকে জোর করে তুলে বারহাট্টার দশধার এলাকায় নিয়ে যান। এসময় গৃহবধূ কোনোক্রমে মোটরসাইকেল থেকে নেমে দৌড় দেন। পরে কামরুল ও তার তিন বন্ধু ওই নারীকে ধর্ষণের চেষ্টা চালান।

তখন গৃহবধূর চিৎকারে স্থানীয় লোকজন চলে এলে ধর্ষণকারীরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় গৃহবধূর স্বামী বৃহস্পতিবার বিকেলে চারজনকে আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন।

পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে কামরুল হাসান ও শাহ আলমকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠায়। এ ঘটনায় অন‌্য দুই আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।