• আজঃ বুধবার, ৬ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২১শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

পচা পেঁয়াজের ট্রাক ফিরিয়ে নিল ভারত

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জের সোনামসজিদ স্থলবন্দর দিয়ে ভারতের মাহদীপুরে আটকে থাকা পচা পেঁয়াজের ট্রাক ফিরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) সকালে আবারও পেঁয়াজ আসা বন্ধ হয়ে গেছে। কবে নাগাদ আবার আসা চালু হবে সেটা অনিশ্চিত বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশি ব্যবসায়ীরা। তবে ওপারে আটকে থাকা পেঁয়াজের ট্রাক আর নিতে রাজিও নন ব্যবসায়ীরা। কারণ হিসেবে তারা দেখছেন দীর্ঘদিন ওপারে ট্রাকে আটকে থাকা পেঁয়াজ পচে গেছে। যেটা আনলে লোকসান গুণতে হতে পারে।

শনিবার ৮টি ট্রাকে ২১৩ মেট্রিক টন পেঁয়াজ প্রবেশ করলেও রোববার কোনো পেঁয়াজের ট্রাক বাংলাদেশে প্রবেশ করেনি। উল্টো আটকে থাকা পেঁয়াজের অধিকাংশ ট্রাকই ভারতের অভ্যন্তরে ফিরিয়ে নেয়। বর্তমানে আটকে থাকা শতাধিক ট্রাক বাংলাদেশে প্রবেশ নিয়েও অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে।

এদিকে আমদানি করা পেঁয়াজের এক তৃতীয়াংশ নষ্ট হয়ে যাওয়ায় আমদানিকারকরা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন। তবে জেলার বিভিন্ন বাজারগুলোয় কেজি প্রতি পেঁয়াজের দাম ১০ টাকা করে কমেছে বলে জানা গেছে।

বিভিন্ন বাজারগুলোতে দেখা গেছে, পেঁয়াজের দাম ১০ থেকে ১৫ টাকা কমে এখন খুচরা বাজারে বিক্রি হচ্ছে ৪৫ থেকে ৫০ টাকা এবং পাইকারি বাজারে ১৫ থেকে ২০ টাকা কমে বিক্রি হচ্ছে ৩৫ থেকে ৪০ টাকা কেজি দরে।

ভারতের মহদীপুর সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট-এর এক প্রতিনিধি নাম না প্রকাশ করার শর্তে জানান, শনিবার রাতের মধ্যে তিন শতাধিক পেঁয়াজের ট্রাক মহদীপুর থেকে তাদের দেশের অভ্যন্তরে ফিরিয়ে নেয়া হলেও বর্তমানে বাংলাদেশে প্রবেশের অপেক্ষায় রয়েছে শতাধিক ট্রাক।

এদিকে সোনামসজিদ স্থলবন্দর সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের নেতা আবদুল আওয়াল জানান, সোনামসজিদ স্থলবন্দরে শনিবার আমদানি করা পেঁয়াজের গুণগত মান খারাপ হওয়ায় তারা পেঁয়াজের দাম পাচ্ছেন না। এতে করে আমদানিকারকরা ব্যাপক লোকসানের মুখে পড়েছেন।

তিনি মহদীপুর সিঅ্যান্ডএফ ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ভুপতি মণ্ডলের উদ্ধৃতি দিয়ে জানান, ১৪ সেপ্টেম্বরের আগের এলসির টেন্ডার করা ৮টি ট্রাকে ২১৩ মেট্রিক টন পেঁয়াজ বাংলাদেশে এলেও আর কোনো পেঁয়াজের ট্রাক বাংলাদেশে প্রবেশ করবে না।

অন্যদিকে পানামা পোর্ট লিংক লিমিটেডের বন্দর ম্যানেজার মো. মাইনুল ইসলাম জানান, রোববার সকাল থেকে মাহদীপুর বন্দর দিয়ে অন্যান্য ভারতীয় পণ্যবাহী ট্রাক প্রবেশ করলেও পেঁয়াজের কোনো ট্রাক প্রবেশ করেনি (বিকেল ৪টা পর্যন্ত)। ভারতে আটকে থাকা পেঁয়াজের ট্রাক ভারতীয় কর্তৃপক্ষ ফিরিয়ে নিচ্ছে। তবে মাহদীপুর বন্দরে এলসি করা ৭০-৮০ ট্রাক পেঁয়াজ আটকে আছে।