• আজঃ রবিবার, ১০ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৫শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

রংপুরের পীরগঞ্জ উপ‌জেলা প‌রিষদ চত্বর দৃষ্টিনন্দন হচ্ছে স্বপ্ন বাগানে

নাসরিন নাজ(রংপুর)প্রতিনিধিঃ


একজন আত্মপ্রত্যয়ী মানুষের স্বপ্ন এবং সকলের সহযোগিতা ও আন্তরিকতার কাজের মাধ্যমে সম্ভাবনাময় হ‌চ্ছে রংপু‌র জেলার পীরগঞ্জ উপ‌জেলা প‌রিষদ চত্বর। ব‌্যক্তিগত ‌উ‌দ্যো‌গে দৃ‌ষ্টি নন্দিত কর‌তে নিরলষ ভা‌বে কাজ ক‌রে যা‌চ্ছেন উপ‌জেলা নির্বাহী কর্মকর্তা টি এম এ ম‌মিন।

সাম্প্র‌তিক সম‌য়ে কোভিড উনিশ ক‌রেনা ভাইরা‌সে দে‌শের অর্থ‌নৈ‌তিক ক্ষ‌তি পু‌শি‌য়ে নি‌তে দে‌শের এক ই‌ঞ্চি জ‌মিও প‌তিত থাক‌বে না বলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হা‌সিনার দেয়া এই ঘোষনা কে বাস্তবায়ন কর‌তে রংপুর-৬ পীরগঞ্জ আস‌নের জাতীয় সংসদ সদস্য ড. শি‌রিন শার‌মিন চৌধু‌রীর নি‌র্দে‌শে উপ‌জেলা প‌রিষ‌দের চেয়ারম্যান নুর‌ মোহাম্মদ মন্ড‌লের সহ‌যো‌গিতায় উপ‌জেলা প‌রিষ‌দের পুরাতন গাছ গু‌লোর ডালপালা ছেঁ‌টে দি‌য়ে উপ‌জেলা প‌রিষদ চত্বরের প‌রিত্যক্ত ও অব্যবহারিত স্থা‌নের জঙ্গল,আবর্জনা প‌রিস্কার ক‌রেন।

প‌রিক‌ল্পনা মোতা‌বেক ৬’শ সুপা‌রি গাছ,‌৩ শতাধিক মাল্টা,৬ শতাধিক সব‌রি জা‌তের কলা,১’শ পেঁ‌পে,‌নিম গাছ ,আমড়া , ৪’শ ৩০ টি দে‌শি উন্নত জা‌তের লেবুর গাছসহ প্রায় ১ হাজার ৯’শ ৫০ টি বি‌ভিন্ন প্রজা‌তির গাছ রোপন করে স্বপ্ন বাগান না‌মে ওই বাগানের নামকরন করেন। উপ‌জেলা প‌রিষ‌দের স্বপ্ন বাগান ই‌তি ম‌ধ্যে দৃ‌ষ্টি নন্দন হি‌সে‌বে প‌রিনত হ‌য়ে‌ছে।

এছাড়াও আবা‌সিক ভব‌নে থাকা কর্মকর্তা কর্মচা‌রি‌দের জন্য ‌কীট নাশক মুক্ত সব‌জির বাগা‌নে ঢেঁড়স,লাল শাক,কল‌মি শাক, পুঁইশাক,ডাটাশাক,‌বেগুন,কাঁচাম‌রিচ,কচু,করলা,‌মি‌ষ্টি কুমড়া,চাল কুমড়া,শসা,‌ঝিঙ্গা,এবং গরুর খামারী‌দের জন‌্য দৃশ্যমান হি‌সে‌বে উন্নত জা‌তের নে‌পিয়ার ওয়ান নামক ঘাস রোপন ক‌রে‌ছেন।

ইতিম‌ধ্যে ‌রো‌পিত ঐ সকল শাক সব‌জির ফলন শুরু হ‌য়ে‌ছে। অপর‌দি‌কে নির্বাহী কর্মকর্তার বাং‌লোসহ কর্মকর্তা‌দের আবা‌সিক ভবন ও এলাকা সুর‌ক্ষিত এবং নিরাপদ রাখ‌তে প্রা‌চীর ও অত্যাধু‌নিক ফটক নির্মান ক‌রে তন্দ্রা বিলাশ নামকরন করা হয়। গত ৩রা জুন বুধবার রংপুরের অ‌তিরিক্ত জেলা প্রসাশক ( সা‌র্বিক) সৈয়দ এনামুল ক‌বির স্বপ্ন বাগান প‌রিদর্শন ক‌রেন।

উপ‌জেলা নির্বাহী কর্মকর্তা টি এম এ ম‌মিন জানান- স্বপ্ন বাগানের রে‌াপিত বি‌ভিন্ন প্রজা‌তির গাছের ম‌ধ্যে আগামী ২বছ‌রের ম‌ধ্যে মাল্টা ও ৫ বছ‌রের ম‌ধ্যে সুপা‌রির ফলন শুরু হ‌বে । স‌ঠিক ভা‌বে প‌রিচর্যা কর‌লে এবং পূর্ণাঙ্গ ফলন হ‌লে প্র‌তি বছ‌রে ১২ লক্ষ টাকার ফল উৎপাদন হ‌বে।

প‌রিচর্যা ও শ্র‌মিক খরচ প‌রি‌শোাধ কর‌ে প্রায় ৬ লক্ষাধীক টাকা সরকারের রাজস্ব আয় বাড়‌বে এবং কিটানাশক মুক্ত যে সব‌জির বাগান করা হ‌য়ে‌ছে কর্মকর্তা এবং কর্মচা‌রি‌দের খাবা‌রের প‌রেও তা বাজা‌রে বিক্রয় করা সম্ভব হ‌বে এবং সেখান থে‌কেও সরকা‌রের রাজস্ব বাড়া‌নো সম্ভব হবে বলে সংশ্লিষ্ট সকলে মত দেন।