• আজঃ বুধবার, ১৩ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৮শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

যশোরে করোনায় প্রথম মৃত্যু শিল্পপতির

বিল্লাল হোসেন,যশোর প্রতিনিধি:


কোভিড-১৯ নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে যশোরের অভয়নগরের প্রথম এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। তার নাম আমির হোসেন(৭৩)। তিনি নওয়াপাড়া পৌর এলাকার শংকরপাশা এলাকার বাসিন্দা এবং বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা ও শিল্পপতি ছিলেন।

শনিবার দুপুরে খুলনার গাজী মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। তবে ঘটনাটি তার স্বজনরা চেপে রাখতে চাইলেও শেষ রক্ষা হয়নি। করোনা শনাক্ত হওয়ার একদিন পরেই তিনি মারা গেলেন বলে জানিয়েছেন অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মাহমুদুর রহমান রিজভী।

ডা. গাজী মিজানুর রহমান সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, কিডনির সমস্যা ও স্ট্রোক নিয়ে গত সপ্তাহে আমির হোসেনকে স্বজনরা হাসপাতালে ভর্তি করেছিলেন। তার করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে বিষয়টি জানানো হয়নি।

তিনি মারা যাওয়ার পর বিষয়টি জানতে পেরেছি।
অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মাহমুদুর রহমান রিজভী জানিয়েছেন, গত ৩০ মে আমির হোসেনের নমুনা সংগ্রহ করে সিভিল সার্জন অফিসের মাধ্যমে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (খুমেক) ল্যাবে পাঠানো হয়েছিলো। তার পরীক্ষার ফলাফল আসে ৫ জুন শুক্রবার।

এতে আমির হোসেনের করোনা পজেটিভ শনাক্ত হয়। তাৎক্ষণিক বিষয়টি তার পরিবারের সদস্যদের জানিয়ে দেয়া হয়েছিলো। তিনি খুলনার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তখনও তার পরিবার কিছু বলেননি। তার মৃত্যুর পর লাশ এলাকায় আনার পর জানতে পেরেছি। পরে বিষয়টি সিভিল সার্জনকে অবগত করেছি।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, শনিবার বিকেলে নওয়াপাড়ার পৌরসভার শংকরপাশা এলাকায় আমির হোসেনের দাফন করা হয়। স্থানীয়রা আরো জানান, প্রথমে করোনায় আক্রান্তে মৃত্যুর বিষয়টি চেপে থাকার চেষ্টা করে শেষ পর্যন্ত তা সম্ভব হয়নি।

জনরোধ এড়াতে তার পরিবারের লোকজন গোপন করতে চেয়েছিলেন। যশোরের সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহীন জানিয়েছেন, সরকারের স্বাস্থ্যবিধি মেনে আমির হোসেনের দাফন করা হয়েছে বলে শুনেছি। তার সংস্পর্শে থাকা স্বজনদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে।

ফলাফল না আসা পর্যন্ত তাদের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশনা দেয়া হবে। সিভিল সার্জন জানান, এই পর্যন্ত যশোর জেলায় মোট ১২৭ করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। তারমধ্যে প্রথম মারা গেলেন আমির হোসেন। সুস্থ হয়েছেন ৯৬ জন।