• আজঃ রবিবার, ১২ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

ভিসা ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে অভিযানের নির্দেশ কুয়েত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের

মানব পাচার ও ভিসা ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে কঠোর হচ্ছে কুয়েত সরকার !!

শনিবার (১৮ এপ্রিল ) মন্ত্রী বলেন, ভিসা ব্যবসায়ী ও তাদের গ্রুফের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে আইনি পক্রিয়া শুরু করেছে পাবলিক প্রসিকিউশন ।

কুয়েতে শ্রম আইন লঙ্ঘনকারী কোম্পানী গুলিকে তাদের শ্রমিকদের দেশে প্রেরণে সমস্ত খরচ বহন করিতে হবে জানিয়েছেন শ্রম ও সামাজিক এবং অর্থনৈতিক বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মরিয়ম আল-আকিল ।

শনিবার আল কাবাসে প্রকাশিত সংবাদে আরো জানাযায়, অনিয়ম ও শ্রম আইন ভঙ্গ করে যে সব কোম্পানি শ্রমিক এনেছে, তাদের শ্রমিকদের নিজ দেশে প্রত্যাবর্তনের বিষয়ে সরকার পদক্ষেপ নিচ্ছে ।

এ বিষয়ে পাবলিক প্রসিকিউশনের তদন্তের পর ভিসা ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ ও শ্রমিকদের নিজ দেশে ফেরত পাঠানোর সকল ব্যয় কোম্পানি গুলিকে বহন করিতে হবে ।

আল-আকিল নিশ্চিত করেছে যে, জনশক্তি ও পাবলিক অথরিটিতে জারি করা আদেশে স্পষ্টভাবে কোম্পানি ফাইলের বিষয়ে উল্লেখ আছে, তারা কি ভাবে আইন লঙ্গন করে ভিসার ব্যবসা করেছে, যে পদ্ধতিতে তারা মানব পাচার অপরাধে জড়িত হয়েছে, তার প্রমাণ পাবলিক প্রসিকিউশনের কাছে প্রমাণিত হয়েছে ।

তবে তথ্যগুলি তদন্ত করার জন্য প্রয়োজনীয় ফাইলগুলির বিষয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণাণাল্যের সাথে সমন্বয় করা হয়েছে।

তিনি বলেন, উপ-প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্র ও মন্ত্রিপরিষদ বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী আনাস আল-সালেহের নেতৃত্বে ভিসা ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে গঠিত যৌথ কমিটি তাদের বিরুদ্ধে প্রমাণ পাওয়ার পর তাত্ক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, গত ১ এপ্রিল থেকে কুয়েতে সাধারণ ক্ষমা চালু হলে একামা ছাড়া বিভিন্ন দেশের লোকজনের নির্বাসন কেন্দ্রে উপস্থিতি দেখে নড়েচড়ে বসে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, উপপ্রধান ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী ভিসা ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে অভিযানের নির্দেশ দেন ।

ইতিমধ্যে ভিসা ব্যবসা ও মানব পাচারের অভিযোগে একজন সরকারী পদস্থ কর্মকর্তা কয়েকজন নাগরিকসহ ৬ জন বিদেশী নাগরিককে আটক করেছে কতৃপক্ষ ।