• আজঃ বৃহস্পতিবার, ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১লা অক্টোবর, ২০২০ ইং

কুয়েতে করোনা আক্রান্ত হয়ে বাংলাদেশির মৃত্যু

চট্টগ্রাম জেলার সন্দ্বীপ থানা সাতঘরিয়া নিবাসি ৭নং ওয়ার্ডের দর্জি বাড়ির মোঃ আব্দুল আলিম, ঝিনুক ছোড়া হাসপাতাল,কুয়েত ইন্তেকাল করেন।

জানা যায় তিনি শ্বাসজনিত জনিত রোগ নিয়ে ৭/৮ দিন পূর্বে হাসপাতালে ভর্তি হন।পরে করোনা পরিক্ষা করলে করোনা পজেটিভ আসে ।

আরো জানা যায়,মরহুম আবদুল আলিম, সন্দ্বীপ বয়হুড ক্লাবের প্রবাসী বিষয়ক সম্পাদক ও আবহানী ক্রীড়া চক্রের সদস্য জুয়েলের পিতা।উল্লেখ্য জুয়েল সন্দ্বীপের জনপ্রিয় ফুটবলার হিসেবে পরিচিত।

এছাড়া তার মেয়ে জাহিদা ফাহিমা আক্তার শিবেরহাট সাতঘরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক ।মরহুমের বিদায়ী আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি ও তার শোকত্ব পরিবারের প্রতি সান্ত্বনা প্রকাশ করছি।

শনিবার (১৮ এপ্রিল) কুয়েতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ড. আব্দুল্লাহ আল-সানাদ নিয়মিত ব্রিফিংয়ে এই তথ্য জানান-
৬ জন বাংলাদেশী, ৬৪ জন ইন্ডিয়ান, ৩জন পাকিস্তানী, ৬জন মিসরীয়, ২জন পিলিপিনো, ২জন নেপালী, ২জন জর্দানী, ১জন আমেরিকান, ১জন ইয়ামেনী ১জন উমানী, ১জন আফগানী, ১জন সিরিয়ান, এবং ৩জন কুয়েতীসহ মোট ৯৩ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে।

গেলো ২৪ ঘন্টায় করোনা ভাইরাস দ্বারা ৯৩ জনকে চিহ্নিত করা হয়েছে। সবমিলে এ পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা হলো ১৭৫১ জন। চিকিৎসাধীন ১৪৬৫ জন,এ পর্যন্ত মোট সুস্থতা লাভ করেছেন ২৮০ জন, সংকটপূর্ণ ৩৪জন ও মৃত্যু হয়েছে ৬জনের। (এক জন ভারতীয় ও এক জন ইরানী নাগরিক এবং ৩ জন স্থানীয় নাগরিক এবং ১জন বাংলাদেশী, বয়স ৬৮ বছর, ৯ দিন আইসিউতে থাকার পর ইন্তেকাল করেন।) ইন্না লিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজিঊন। সূত্রঃ স্বাস্থ্য অধিদপ্তর কুয়েত