• আজঃ বুধবার, ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

দূতাবাসে নিবন্ধনকৃত ১৪৮ জন লিবিয়া প্রবাসীকে ও বাংলাদেশে প্রেরন

ত্রিপলীর চলমান যুদ্ধের কারণে আটকে পড়া এবং দেশে গমণের জন্য দূতাবাসে নিবন্ধনকৃত ১৪৮ জন প্রবাসীকে লিবিয়া ও বাংলাদেশ সরকারের তত্ত্বাবধানে এবং আইওএম-এর সহয়তায় একটি চার্টার্ড ফ্লাইটের মাধ্যমে মিসরাতা বিমানবন্দর হতে ২৮ জানুয়ারি ২০২০ তারিখে দেশে প্রেরণ করা হয়েছে।

এদের মধ্যে ত্রিপলীর যুদ্ধে মারাত্মকভাবে আহত ২ জন প্রবাসীসহ ৯ জন অসুস্থ বাংলাদেশী নাগরিক ছিলেন। এছাড়া উক্ত চার্টার্ড ফ্লাইটে ত্রিপলীর যুদ্ধে নিহত চারজন প্রবাসীর মৃতদেহসহ মোট পাঁচজন বাংলাদেশী নাগরিকের মৃতদেহও প্রেরণ করা হয়েছে।

লিবিয়া থেকে বাংলাদেশগামী

লিবিয়া থেকে বাংলাদেশগামী

উল্লেখ্য যে, ত্রিপলীর যুদ্ধ কবলিত এলাকায় আটকে পড়া প্রবাসীদের ইতোপূর্বে নিরাপদ স্থানে স্থানান্তর পূর্বক আইওএম-এর সাথে তাদের রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করা হয়। এছাড়া বর্তমান প্রতিকূল পরিস্থিতির মধ্যেও দূতাবাস হতে লিবিয়ার সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ হতে এ সকল প্রবাসীর অনুকূলে বহির্গমন ছাড়পত্রসহ প্রয়োজনীয় অনুমতির ব্যবস্থা করা হয়েছে। অন্যদিকে ত্রিপলীর মেতিগা বিমানবন্দরে বারংবার বোমা হামলার কারণে নিরাপত্তা ঝুঁকি বিবেচনায় চার্টার্ড ফ্লাইটটি ত্রিপলী হতে ২২০ কি.মি. দূরবর্তী মিসরাতা বিমানবন্দর হতে পরিচালনার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

সকল প্রয়োজনীয় কার্যাদি সুষ্ঠুভাবে সম্পন্নের পর ফ্লাইটটি যথাসময়ে পরিচালনা করার ক্ষেত্রে সহযোগিতা করার জন্য মিসরাতা বিমানবন্দরসহ লিবিয়ার সংশ্লিষ্ট সকল কর্তৃপক্ষ এবং আইওএম-এর প্রতি দূতাবাসের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি।