• আজঃ সোমবার, ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

মেয়েকে নিয়ে বাজে মন্তব্য মুখ খুললেন শিশির

সাকিব আল হাসানের মেয়ে আলাইনার ছবিতে বাজে মন্তব্যকারীদের নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে তোলপাড় চলছে। এরিমধ্যে বিষয়টি খতিয়ে দেখে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে পুলিশ।

গত দুদিন ঘরে বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভের দেখা যাচ্ছে ফেসবুকারদের মধ্যে। এবার মুখ খুললেন সাকিব আল হাসানের স্ত্রী উম্মে আল হাসান শিশির। তিনি বাজে মন্তব্যকারীদের চেয়ে বরং যারা ওই মন্তব্যগুলো ফলাও করে প্রচার করেছেন তাদের ওপরই বেশি বিরক্তি প্রকাশ করেছেন।

শুক্রবার (২১ আগস্ট) রাতে ফেসবুকে তিনি লিখেছেন, কি হচ্ছে তা আমি খেয়ালও করিনি কারণ, এতে আমরা বিব্রত হয়নি। পাবলিক ফিগার হিসেবে আমাদের অনেক ফ্যান ফলোয়ার্স আছেন, অনেক শুভাকাঙ্ক্ষী যেমন আছেন তেমনি কিছু লোক আছেন যারা পছন্দ করেন না; এটা সম্পূর্ণ একটা প্যাকেজের মতো।

আমরা সবসময় মানুষের আগ্রহের কেন্দ্রে থাকি এবং এটা ভালো। বিশ্বের অনেক সেলেব্রিটি অনেক গুরুতর বিষয় ফেস করেন কিন্তু অন্য দেশগুলোতে তাদের এতটা সময় নেই যে, হাজারো ভালো কমেন্টের মধ্য থেকে ৪/৫টা খারাপ কমেন্ট খুঁটে খুঁটে বের করবে।

তিনি বলেন, আমি ওই সকল মন্তব্যকারীদের নিয়ে ভাবছি না কারণ সেগুলোতে আমরা বিব্রত হয়নি বরং ওই সকল পেজের এ্যাডমিনদের নিয়ে ভাবছি যারা ওই চারটা কমেন্ট খুঁজে বের করে ছোট্ট একটা বিষয়কে বড় করে তুলেছে।

ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নিয়ে কাজ করছে। চলুন, আপনাদের পেজের কিছু উন্নতি হোক! আমাদের মোটিভ এবং জীবনযাপনে কোনকিছুই প্রভাব ফেলবে না কারণ, এই তুচ্ছ বিষয়টা আমাদের মোটেও বিব্রত করেনি।

বর্তমানে সপরিবারে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করছেন সাকিব আল হাসান। সেখানেই স্ত্রী-কন্যাকে নিয়ে বেরিয়েছিলেন ঘুরতে। সম্প্রতি তার পোস্ট করা একটি ছবিতে দেখা যায়, সূর্যমুখী বাগানে দাঁড়িয়ে আছেন হাস্যোজ্জ্বল আলাইনা। চুলে গোঁজা দুটো ফুল। আর সেই ছবিতেই নানাধরনের বাজে মন্তব্য করতে দেখা গেছে কয়েকজনকে।

বাজে কমেন্টগুলোসহ সাকিব-কন্যার ছবিটি ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। শাহিন আলম, ড্রিমলেস কিং রেজোয়ান, আবরার শাহরিয়ার, শাহ মো. আবদুল্লাহ, নিউটন তরফদার ও বিনিয়াস হাসদা নামের আইডি থেকে বাজে মন্তব্যগুলো করা হয়। এরপরই ছবিটি ডিলিট করে দেন সাকিব আল হাসান।

এই ঘটনায় অনেকেই ক্ষোভে ফেটে পড়েন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অভিযুক্তদের বিচার দাবি করেন। বিষয়টি আমলে নিয়েই কমেন্টকারীদের খোঁজ নেয়া শুরু করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

ঢাকা মহানগর পুলিশের সাইবার সিকিউরিটিজ অ্যান্ড ক্রাইম বিভাগের উপকমিশনার আ ফ ম আল কিবরিয়া গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, শিশুটিকে নিয়ে করা আপত্তিকর মন্তব্য পুলিশের চোখে পড়েছে। যে যে আইডি থেকে এ ধরনের মন্তব্য করা হয়েছে সেগুলো শনাক্তের কাজ চলছে। শনাক্ত হলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তবে সাকিব আল হাসান এ ব্যাপারে পুলিশের কাছে কোনো অভিযোগ দেননি। বিষয়টি নজরে আসার পর পুলিশ স্বপ্রণোদিত হয়েই কাজটি করছে বলেও জানান ওই কর্মকর্তা।