• আজঃ রবিবার, ১০ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৫শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

সরকারি চাকরি প্রার্থীদের বয়সে ছাড় দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি

করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ পরিস্থিতির কারণে বিসিএস ছাড়া সরকারি চাকরি প্রার্থীদের বয়সে ছাড়া দিয়েছে সরকার। নিয়োগ প্রক্রিয়া আটকে থাকায় ক্ষতিগ্রস্ত প্রার্থীদের সরকারি চাকরিতে প্রবেশের ক্ষেত্রে গত ২৫ মার্চ যাদের বয়স ৩০ বছর হয়ে গেছে, তাদের জন্য নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে পাঁচ মাস ছাড় দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) এক আদেশে গত ২৫ মার্চ যাদের বয়স ৩০ বছর পূর্ণ হয়েছে তাদের আবেদনের যোগ্য বিবেচিত করে মন্ত্রণালয়, বিভাগ ও সংস্থাগুলোকে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করতে বলেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

উপসচিব দীপংকর বিশ্বাস স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, সরকারের সব মন্ত্রলালয় বা বিভাগের অধিদপ্তর/পরিদপ্তর/সংস্থা, সংবিধিবদ্ধ, স্বায়ত্তশাসিত জাতীয়কৃত প্রতিষ্ঠানে বিভিন্ন ক্যাটাগরির সরকারি চাকরিতে (বিসিএস ছাড়া) সরাসরি নিয়োগের লক্ষ্যে যথাযথ কর্তৃপক্ষ থেকে ২৫ মার্চের আগে নিয়োগের ছাড়পত্র গ্রহণসহ সার্বিক প্রস্তুতি গ্রহণ করা সত্ত্বেও কোভিড-১৯ পরিস্থিতির কারণে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করতে পারেনি, সে সকল দপ্তর নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে ২৫ মার্চ তারিখে প্রার্থীদের সর্বোচ্চ বয়সসীমা নির্ধারণ করে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়/ বিভাগকে নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হয়েছে।

জানা গেছে, করোনার কারণে বন্ধের মধ্যে মন্ত্রণালয়, বিভাগ কিংবা সংস্থা চাকরির জন্য বিজ্ঞপ্তি দিতে পারেনি। অনেকের চাকরির বয়স এই সময়ের মধ্যে চলে গেছে। সেক্ষেত্রে তারা পাঁচ মাসের বয়সের একটা ছাড় পাবেন। আগস্ট পর্যন্ত বিজ্ঞপ্তিগুলোতে আবেদন করতে পারবেন তারা।

উল্লেখ্য, বর্তমানে সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩০ বছর, মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের ক্ষেত্রে ৩২। প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির চাকরিতে সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) মাধ্যমে নিয়োগ দেওয়া হয়। তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির পদগুলোতে নিয়োগের দায়িত্ব সংশ্লিষ্ট সরকারি দফতরের।