• আজঃ রবিবার, ১০ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৫শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

নারায়ণগঞ্জে মসজিদে বিস্ফোরণের কারণ উদঘাটনের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শুক্রবার নারায়ণগঞ্জে মসজিদে ভয়াবহ বিস্ফোরণের কারণ উদঘাটনে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন। ওই বিস্ফোরণে বেশ কয়েকজন হতাহত হয়েছেন।

আজ সংসদে সদ্য প্রয়াত ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জী এবং একাদশ জাতীয় সংসদের সদস্য এডভোকেট সাহারা খাতুন ও ইসরাফিল আলমসহ কয়েকজন বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের মৃত্যুতে জাতীয় সংসদে শোক প্রস্তাবের উপর আলোচনায় অংশগ্রহণকালে সংসদ নেতা একথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমি নারায়ণগঞ্জের মসজিদে ওই বিস্ফোরণের কারণ উদঘাটনের জন্য মন্ত্রিপরিষদ সচিবসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে নির্দেশ দিয়েছি। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী আজ একাদশ জাতীয় সংসদের নবম অধিবেশনে এই শোক প্রস্তাব উত্থাপন করেন।

নারায়ণগঞ্জ মসজিদে বিস্ফোরণের কারণ উদঘাটনে ইতোমধ্যেই একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে এবং তদন্ত শুরু হয়ে যাওয়ায় খুব শিগগিরই কি কারণে এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটেছে তা বেরিয়ে আসবে বলে প্রধানমন্ত্রী আশা প্রকাশ করছেন। তিনি আরো বলেন, ‘বিশেষজ্ঞরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এবং আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে।’

এ সময় সংসদ নেতা একটি গ্যাসের পাইপলাইনের উপর মসজিদ নির্মাণের অনুমোদন অথবা এমন একটি ছোট জায়গায় ছয়টি এয়ার কন্ডিশনারে বিদ্যুৎ সংযোগের অনুমোদন দেয়ার ক্ষেত্রে কোন অনিয়ম হয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখতে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি নির্দেশ দিয়েছেন।

তিনি আরো বলেন, ‘এমন একটি ছোট জায়গায় ছয়টি এয়ার কন্ডিশনার স্থাপন করা হয়েছে। পাশাপাশি মসজিদটি একটি পাইপলাইনের উপর নির্মিত হয়েছে বলে জানা গেছে। সাধারণত গ্যাস পাইপের উপর কোন ধরনের স্থাপনা নির্মাণের অনুমতি নেই। রাজউক কি এই অনুমোদন দিয়েছে? কোন প্রতিষ্ঠানই এই অনুমোদন দিতে পারে না। কারণ, তাহলে এ ধরনের দুর্ঘটনার ঝুঁকি থেকেই যায়। এখন এই ব্যাপারে তদন্ত করা হবে।’

প্রধানমন্ত্রী দেশব্যাপী অবৈধ স্থানে নির্মিত মসজিদ এবং এসব মসজিদে অপরিকল্পিতভাবে এয়ার কন্ডিশনার স্থাপনের বিষয়ে ভালভাবে খোঁজ নেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট সকল কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেন। এ প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন, ‘এ ধরনের পদক্ষেপ নেয়া অত্যন্ত জরুরী। অন্যথায়, যে কোন সময় এমন আরো দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।’

মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনাকে অনাকাক্সিক্ষত ও দুঃখজনক হিসেবে অভিহিত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাঁর সরকার এই ঘটনায় দগ্ধদের উন্নত চিকিৎসা দেয়ার জন্য সম্ভাব্য সব ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

তিনি আরো বলেন, শেখ হাসিনা ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি প্রধান সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেনের সাথে তাঁর সার্বক্ষণিক যোগাযোগ আছে এবং আহতদের সর্বশেষ অবস্থা সম্পর্কে তাঁকে অবহিত করা হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী এই ঘটনায় নিহতদের রুহের মাগফিরাত কামনা ও তাদের শোক-সন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান। এছাড়াও, তিনি এই ঘটনায় আহতদের আশু আরোগ্য কামনা করেন।

এখন পর্যন্ত নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার বায়তুস সালাহ জামে মসজিদে শুক্রবার রাতের ওই বিস্ফোরণে আহত ৫০ জনের মধ্যে ২৩ জন প্রাণ হারিয়েছেন। এরা গুরুতর দগ্ধ অবস্থায় রাজধানীর শেখ হাসিনা ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারিতে চিকিৎসাধীন ছিলেন।