• আজঃ বুধবার, ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

মেহেদী হাসান রানার বোলিং তোপে সিলেটকে হারালো চট্টগ্রাম

বাঁহাতি পেসার মেহেদী হাসান রানার বোলিং তোপে সিলেট থান্ডারকে ১২৯ রানের আটকে দেয় চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। এরপর লেন্ডল সিমন্স ও নুরুল হাসান সোহানের ব্যাটে ১৮ ওভারে ৪ উইকেটের জয় তুলে নেয় ট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। সিমন্স ব্যাট হাতে ৪৪ রান করেন। সোহান ২৪ বলে ৩৭ রানে অপরাজিত ম্যাচ খেলেন। সিলেটের ক্রিসমার সান্টোকি বল হাতে নেন ৩ উইকেট।

বঙ্গবন্ধু বিপিএলে এ নিয়ে টানা চার ম্যাচে হারের দেখা পেলো  সিলেট থান্ডার। ২২ বছর বয়সী পেসার মেহেদী হাসান রানার ৪ ওভারে ২৩ রান দিয়ে  ৪ উইকেট তুলে নেন। টি-টোয়েন্টিতে এটি তার ক্যারিয়ার সেরা বোলিং ফিগার।ম্যাচসেরা হন মেহেদী হাসান রানা।

৪ ওভারে ২৮ রানে রুবেল হোসেন তুলে নেন ২ উইকেট। মুক্তার আলীর  ২৭ রান দিয়ে তুলে নেন ১টি  উইকেট। স্পিনার নাসুম আহমেদ কোনো উইকেট না পেলেও ৪ ওভারে খরচ করেন মাত্র ১৭ রান। বিদেশি বোলারের মধ্যে কেসরিক উইলিয়ামস ৪ ওভারে ৩১ রানে তুলে নেন ১টি উইকেট।

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে আজ দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স টসে জিতে সিলেট থান্ডার কে ব্যাটিং্যে পাঠায়। টানা তিন ম্যাচ হারা দলটি  ভালোভাবে  শুরু  করতে পারেনি । দলীয় ১৩ রানে বাঁহাতি পেসার মেহেদী হাসান রানার বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন রনি তালকুদার (২)। ২৩ রান করে বিদায় নেন শাফিকুল্লাহ শাফাক (৬)। তার উইকেটটি নেন জাতীয় দলের পেসার রুবেল হোসেন। ৩২ বলে ৩৮ রান করে দলীয় ৬২ রানে আউট হন আন্দ্রে ফ্লেচার। ১২তম ওভারে উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ মিঠুন (১৫) ও জনসন চার্লসকে (৩) করে ঘরে ফিরেন এ দুটি উইকেট নেন বাঁহাতি পেসার মেহেদী হাসান রানা।

ষষ্ঠ উইকেটে মোসাদ্দেক-নাঈমের ৪০ রানের জুটিতে ১০০রান পার করে সিলেট থান্ডার। ১৬ বলে ১১ রান করে রুবেলের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হন নাঈম হাসান। অধিনায়ক মোসাদ্দেক ২২ বলে ৩০ রান করে কেসরিক উইলিয়ামসের বলে বোল্ড হন। নিজের চতুর্থ ওভারে এসে মেহেদী হাসান রানা ফেরান ক্রিসমার সান্টোকিকে (৯)।