• আজঃ বৃহস্পতিবার, ১৪ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৯শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

শফিউলের জোড়া আঘাত ১৩৭ রানে থেমে গেলো রংপুর । বিপিএল ২০১৯।।

রংপুরের দুই ওপেনারের ব্যাটে শুরুটা ভালোই করেছিল। তবে সময়ের সঙ্গে নিজেদের ফিরে পেতে থাকে খুলনা। তার ফলও পায় হাতে হাতে। খুলনার গতির হুঙ্কারে মাত্র ১৩৭ রানেই থামে ৯ উইকেট হারানো রংপুর।দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৯ রান করেন নাঈম শেখ। ৪২ রান করেন আরেক দেশি তারকা ফজলে মাহমুদের ব্যাট থেকে। এছাড়া ২২ রান করেন লুইস গ্রেগরি।

খুলনার হয়ে বল হাতে প্রতাপ  ছড়ান জাতীয় দলের পেসার শফিউল ইসলাম। ৪ ওভারে একটি মেডেনসহ ২১ রান দিয়ে অভিজ্ঞ এ বোলার তুলে নেন ৩ উইকেট। এছাড়া দুটি করে উইকেট পান মোহাম্মদ আমির ও শহিদুল ইসলাম।

শেহজাদের বিদায়ের পরও একই ছন্দে খেলছিলেন নাঈম শেখ।তার ব্যাটে রানের চাকা বাড়ছিল রংপুরের। এগিয়ে গিয়েছিলেন নিজের ফিফটির খুব কাছে। তবে মাত্র এক রান দূরে থাকতে আক্ষেপ নিয়ে ফিরতে হয়েছে প্রতিভাবান তরুন এই ওপেনারকে।দুর্ভাগ্যজনকভাবে রানআউট হয়ে ফেরার আগে নাঈমের ৩২ বলে ৪৯ রানের ইনিংসটি ৫টি চার ও ২টি ছক্কায় সাজানো ।

সেই ঘোর ধাক্কা কাটতে না কাটতেই রংপুর শিবিরে খুলনার আরেক আঘাত। এবার শিকারির ভুমিকায় সেই আমির। নিজের বলে নিজেই তালুবন্দী করে ফিরিয়েছেন অধিনায়ক মোহাম্মদ নবিকে (৪)।১৬ ওভার শেষে ৫ উইকেট হারানো রংপুরের সংগ্রহ ১০৫। এক পাশ আগলে রেখে ফজলে মাহমুদ ব্যাট করছেন ৩০ রানে। তাকে সঙ্গ দিতে ক্রিজে এসেছেন লুইস গ্রেগরি (৬)।

শুরুটা ভালোই হয়েছিল দুই ওপেনার শেহজাদ ও নাঈম শেখের হাত ধরে। তবে দ্রুত রংপুরের তিন উইকেট তুলে নিয়ে মাচের লাগাম টেনে ধরেন খুলনা টাইগার্স।

মারমুখি ওপেনার শেহজাদকে ফিরিয়ে শুরুটা করেন পাকিস্তানি পেসার মোহাম্মদ আমির। তবে জাতীয় দলের তারকা পেসার শফিউল ইসলামের জোড়া আঘাতে সেই ছন্দ আর ধরে রাখতে পারেনি সাবেক চ্যাম্পিয়নরা।থিতু হওয়ার আগেই ক্যামেরন ডেলপোর্টকে ফিরিয়ে শুরু, পরে ধুঁকতে থাকা নাদিফ চৌধুরিকেও রানের খাতা খুলতে দেননি অভিজ্ঞ এই পেসার।

একদিন বিরতি দিয়ে ফের মাঠে গড়িয়েছে বঙ্গবন্ধু বিপিএলের চট্টগ্রামের পর্বের খেলা। জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে শুক্রবার দিনের প্রথম ম্যাচে টস জিতে রংপুর রেঞ্জার্সকে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়েছে খুলনা টাইগার্স।

দুই ওপেনারের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ২ ওভার শেষে কোনো উইকেট না হারানো রংপুরের সংগ্রহ ২০। মোহাম্মদ শেহজাদ ব্যাট করছেন ৬ বলে ১১ রান নিয়ে, তাকে যোগ্য সঙ্গ দেওয়া মোহাম্মদ নাঈম শেখের সংগ্রহ ৬ বলে ৯।

রংপুর রেঞ্জার্স : মোহাম্মদ শেহজাদ (উইকেটরক্ষক), নাঈম শেখ, টম অ্যাবল, ক্যামেরন ডেলপোর্ট, নাদিফ চৌধুরী, ফজলে মাহমুদ, লুইস গ্রেগরি, মোহাম্মদ নবি (অধিনায়ক), আরাফাত সানি, তাসকিন আহমেদ, মুস্তাফিজুর রহমান, মুকিদুল ইসলাম।

খুলনা টাইগার্স : নাজমুল হোসেন শান্ত, রহমানউল্লাহ গুরবাজ, রাইলি রুশো, মুশফিকুর রহিম (অধিনায়ক/উইকেটরক্ষক), শামসুর রহমান শুভ, রবি ফাইলিঙ্ক, মেহেদী হাসান, শহিদুল ইসলাম, মোহাম্মদ আমির, শফিউল ইসলাম, রবিউল হক।